শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৮

চুল কেটে গাছে বেঁধে দম্পতিকে নির্যাতন

পাবনা প্রতিনিধি

চুল কেটে গাছে বেঁধে দম্পতিকে নির্যাতন

পাবনায় মামলা তুলে না নেওয়ায় দম্পতিকে গাছে বেঁধে মাথার চুল কেটে, সিগারেটের ছ্যাঁকা (আগুনে) দিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। সদর উপজেলার মাদারবাড়িয়া গ্রামে শনিবার দিবাগত রাতে এই ঘটনা ঘটে। আহত দম্পতি জিলাল প্রামাণিক ও সখিনা খাতুনকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  নির্যাতনের শিকার দম্পতির মেয়ে কাজলী জানান, রাত সাড়ে ৩টার দিকে স্থানীয় শাহজাহানসহ একদল দুর্বৃত্ত মুখে কালো কাপড় বেঁধে বাড়িতে এসে মা-বাবাকে তুলে নিয়ে যায়। মারপিট করে বাড়ির পাশের একটি নারিকেলের গাছের সঙ্গে বাবাকে বেঁধে মাকে মারপিট শুরু করে। এ সময় তারা মায়ের মাথার চুল কেঁচি দিয়ে কেটে দেয় এবং সিগারেটের আগুন দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছ্যাঁকা দেয়। সন্ত্রাসীরা যাওয়ার সময় বাড়িতে ভাঙচুর, লুটপাট করে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেয়। তাদের সঙ্গে  আমাদের জমি সংক্রান্ত মামলা রয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সখিনা জানান, শাহজাহান ও তার সহযোগীরা আমাদের বাড়ির ২৩ শতাংশ জমি জাল দলিল করে দখলের পাঁয়তারা করলে তাদের বিরুদ্ধে আদালতে তিনটি মামলা করা হয়। মামলার পর থেকে আসামিরা আমাদের প্রাণনাশের হুমকিসহ বিভিন্ন সময়ে বাড়িঘরে হামলা করেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর