শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০১:৫৯

অ্যাসিডদগ্ধ বান্ধবীর পরিণতির কথা জানালেন এএসপি

কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে মঙ্গলবার বিকালে প্রত্যয় উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে অ্যাসিড সহিংসতা প্রতিরোধে অবহিতকরণ সভা হয়। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাথী রাণী শর্মা তার এক বান্ধবীর করুণ পরিণতির কথা তুলে ধরেন। তার কথা শুনে হলে পিনপতন নীরবতা নেমে আসে। তিনি যখন স্কুলে পড়েন তখন তার এক প্রতিবেশী বান্ধবী মাহমুদার ওপর অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। বান্ধবীর বাবা ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা। রিকশা চালিয়ে জীবন চালাতেন। কারো সাহায্য নিতে চাইতেন না। তিনিসহ একজন সাংবাদিকের মাধ্যমে সংবাদ করিয়ে তার জন্য সাহায্যের ব্যবস্থা করেন। পরে লেখা-পড়ায় ব্যস্ত হয়ে যাওয়ায় তার খবর নিতে পারেননি। বিশ্ববিদ্যালয় ছুটির ফাঁকে একবার বাড়িতে যান। মাহমুদার বাবার সঙ্গে দেখা হয়। তিনি তার সম্পর্কে জানতে চান।

মাহমুদার বাবা বলেন, মাহমুদা মরে গেছে। সে মরে আমাকে বাঁচিয়ে দিয়েছে। কারণ মাহমুদার আরও ছোট বোন আছে। তাকে কেউ বিয়ে করতো না, তার জন্য অন্য বোনদেরও বিয়ে হতো না। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. নুরুজ্জামান। জেড এম মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, প্রজেষ কুমার সাহা, সেলিনা আক্তার, ডা. সৌমেন রায়, সরদার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, রুমা সুলতানা, মাহমুদা আক্তার, সেলিম রেজা সৌরভ ও নারী নেত্রী পাপড়ি বসু প্রমুখ।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর