শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:২০

নতুন আলু বাজারে, কমছে দাম

দিনাজপুর প্রতিনিধি

নতুন আলু বাজারে, কমছে দাম

নতুন আলু বাজারে। কমছে দাম। ভালো দামের আশায় আগাম জাতের আলু আবাদ করেছেন চাষিরা। দাম ভালো পাওয়ার কারণে এর মধ্যে বাজারে আসতে শুরু করেছে নতুন আলু। তবে আগামী সপ্তাহের পর পুরোদমে নতুন আলু বাজারে আসবে। এখন নতুন আলু বাজারে প্রতি কেজি ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে নতুন জাতের আলু বাজারে আসায় পুরাতন আলুর দামও কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে বাজারে পুরনো আলু বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৪০-৪২ টাকায়। কৃষকরা জানান, গত বছর আলুর বাম্পার ফলন হয়েছিল। এ বছর বাজারে পুরাতন আলুর দাম বেশি। তাই আশায় বুক বেঁধে আলু চাষ করেছেন তারা। আগাম আলুর বীজ প্রতি কেজি ৩০ থেকে ৪০ টাকা দরে কিনতে হয়েছে। আলুর দাম ভালো পেলে গত বছরের ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারবেন বলে আশা করছেন কৃষক। তারা আরও জানান, আগাম জাতের আলুর গাছে কোনো ধরনের রোগ বালাই এখন পর্যন্ত দেখা যায়নি। ফলে এবার আলুর ফলনও ভালো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দেশি জাতের চল্লিশা, লালঠি ও কাঠি নাল আলু আগাম বাজারে আসবে। এ ছাড়াও সারা বছর খাওয়ার উপযোগী আলুর বীজ বর্তমানে কৃষকরা রোপণ করছেন। যা দুই মাস পর তোলা হবে। আর সেগুলো সংরক্ষণ করা হবে। হাকিমপুরের আলু চাষি সোহেল বলেন, এক বিঘা জমিতে আগাম জাতের গেনোলা আলু চাষ করেছি। সেচ, সার, বীজ, আলু তৈরি, আলু উত্তোলন ও পরিবহনসহ বিঘাপ্রতি খরচ হয়েছে ১৯-২০ হাজার টাকা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এক বিঘা জমিতে আলু হয়েছে ৩০ মণ। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানায়, দিনাজপুরে আমন ধান কাটা শেষ হতেই সেই জমিতে আলু আবাদ শুরু করেন চাষিরা। চলতি বছর জেলায় ৪২ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে আলু চাষের নির্ধারণ করা হয়েছে। জেলার ১৩ উপজেলাতেই কৃষকরা আগাম জাতের আলু চাষ করেছে। ১০ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে আগাম জাতের আলু রোপণ করা হয়েছে।

 তবে নতুন জাতের আলুর চাহিদা থাকায় অল্প পরিমাণে তোলা হচ্ছে। বাজারে নতুন আলু আসা শুরু হওয়ায় পুরাতন আলুর দাম কিছুটা কমবে এমনটাই বলছেন কৃষি অফিস। চলতি বছর প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতা থাকায় আলু চাষ দুই সপ্তাহ পিছিয়ে যায়। ফলে এবার একটু দেরিতে আগাম জাতের আলু বাজারে আসছে বলে জানায় কৃষি বিভাগ। যারা উঁচু জমিতে আগাম জাতের আলু চাষ করেছে, সেসব আলু এখন বাজারে আসা শুরু করেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর