শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ২৩:৩৮

বিক্ষোভের মুখে বন্ধ সরকারি দোকান নির্মাণ

ফরিদপুর প্রতিনিধি

পৌরসভার থানা রোড সংলগ্ন সরকারি ৫৫ শতাংশ জমি ৮৪ জন ব্যক্তির মধ্যে দোকান নির্মাণের জন্য জমি বরাদ্দ দেয় প্রশাসন। ওই জমিতে নির্মাণ শুরুর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিক্ষোভের মুখে কাজ বন্ধ করে দিল প্রশাসন। ভাঙ্গা থানার ওসি ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ বন্ধ করে সেখান থেকে শ্রমিকদের সরিয়ে দেন। সরকারি জমিতে দোকান বরাদ্দে অনিয়মের অভিযোগ তুলে গতকাল স্থানীয়রা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি উপজেলা ভূমি অফিসের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন ভাঙ্গার আলগী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ম. ম. সিদ্দিক, পৌর কাউন্সিলর সাহেব আলী, বাকী মাতুব্বর প্রমুখ। ম. ম. সিদ্দিক বলেন, দোকান নির্মাণের জন্য অনিয়মের মাধ্যমে জমি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অনেকে আবেদন করেছেন। যারা পাওয়ার যোগ্য তারা পাননি। ওই জমিতে দীর্ঘদিন ধরে কাঠের ব্যবসা করতেন দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, কাঠের ব্যবসা করে সংসার চালাতাম। আমি আবেদন করেছিলাম। আমাকে দোকান বরাদ্দ দেওয়া হয়নি।

 ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাকী মাতুব্বর বলেন, জমি বরাদ্দের জন্য দেড় হাজারের অধিক আবেদন পড়েছে। লটারির মাধ্যমে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় বরাদ্দ দেওয়া উচিত ছিল। ভাঙ্গা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আল-আমিন জানান, এটি সরকারি জমি। আগে কিছু অবৈধ দখলদার ছিল। পাশের মাদরাসার নামে কিছু জমি লিজ দেওয়া ছিল। আমরা অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে আবেদন নিই। আবেদন যাচাই-বাছাই করে যথাযথ প্রক্রিয়ায় দোকান নির্মাণের জন্য জমি বরাদ্দ দিই। এখানে কোনো অনিয়ম হয়নি। ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আমি কাজ বন্ধ করতে এসেছি। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ওই জমিতে দোকান নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর