শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ মে, ২০২১ ২৩:১৩

জরাজীর্ণ ঘরে বসবাস অসহায় ডালিয়ার

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

জরাজীর্ণ ঘরে বসবাস অসহায় ডালিয়ার
Google News

‘মা, ছেলে ও মেয়ে লইয়া খাইয়া না খাইয়া এই ভাঙা ঘরে খুব কষ্ট কইরা দিন কাডাই। বয়সের ভারে দিন-রাইত আর কাজ করতে পারছি না। একটা বিধবা ভাতার কার্ড আর একটা ঘরের লাইগ্যা চেয়ারম্যান মেম্বারের দ্বারে দ্বারে যাইয়া কোনো কিছুই পাইলাম না। অনেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘর পাইছে। আমাগো এমপি সাবরে কইয়া আপনারা আমারে একটা ঘরের ব্যবস্থা কইরা দ্যান। এমন আবেগাপ্লুত ও কান্নাজড়িত কণ্ঠে সাংবাদিকদের কাছে এসব কষ্টের কথাগুলো বললেন পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের বড়গাবুয়া গ্রামের বিধবা ডালিয়া বেগম (৪৪)।  সরেজমিন দেখা গেছে, বড়গাবুয়া গ্রামের মৃত হামেদ খানের স্ত্রী ডালিয়া দীর্ঘদিন ধরে স্বামীর রেখে যাওয়া একটি জরাজীর্ণ ঘরে বৃদ্ধ মা, ছেলে ও মেয়ে নিয়ে অতি কষ্টে জীবনযাপন করছেন। জানা গেছে, তিন সন্তানের জননী ডালিয়ার স্বামী ১২ বছর আগে লিভার সমস্যাজনিত রোগে মারা যান। একমাত্র উপার্জনকারী গত হওয়ায় ডালিয়া নিজেই সংসারের হাল ধরেন। স্বামী বা নিজের রোজগারের অন্য  কোনো উৎস না থাকায় তিনি দোকান ও বাসাবাড়িতে পানি টেনে দিয়ে প্রতিদিন ১৫০-২০০ টাকা দিয়ে খুব কষ্টে সংসার চালাতে লাগলেন। পানির কাজ বাদ দিয়ে মাটি কাটার কাজ শুরু করেন। দুই সন্তানকে লেখাপড়া করাতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর