শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জুন, ২০২১ ০৩:৩৯

লালমনিরহাটে সাক্ষীকে কোপাল দুর্বৃত্তরা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

লালমনিরহাটে সাক্ষীকে কোপাল দুর্বৃত্তরা
Google News

লালমনিরহাটে ২০১৫ সালে আলোচিত যুবলীগকর্মী ও ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ সভাপতি ফখরুল ইসলাম বুলেট হত্যা মামলার সাক্ষী মোস্তাফিজুর রহমান ওরফে লুতুকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এনামুল হককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত রবিবার সন্ধ্যায় আদালত তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন। গত শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের বুড়িরবাজারে মোস্তাফিজুরকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত করা হয়। এ ঘটনায় এনামুলসহ নয়জনের নামে পরদিন শনিবার রাতে মামলা করেন আহতের স্ত্রী রেবেকা সুলতানা। আহত মোস্তাফিজুর চার দিন ধরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পুলিশ জানায়, মামলার অন্য আসামিদের মধ্যে রয়েছেন জেলা পরিষদ সদস্য ও মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি তাহমিদুল ইসলাম ওরফে বিপ্লব ও বুলেট হত্যা মামলার প্রধান আসামি আমিনুল খান। সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বুড়িরবাজারে জেলা পরিষদ সদস্য তাহমিদুল তার লোকজন নিয়ে মোস্তাফিজুরকে ধাওয়া করেন। এ সময় একজনের দোকানে আশ্রয় নিলে সেখানেই তার ওপর হামলা চালানো হয়। এ সময় তার হাত-পা, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে রামদা, রড ও হাতুড়ি দিয়ে অসংখ্যবার আঘাত করা হয়। মোস্তাফিজুরকে বাঁচাতে বাজারের কয়েকজন এগিয়ে এলে তাদেরও ধাওয়া দেওয়া হয়। পরে রক্তাক্ত মোস্তাফিজুরকে পাশের একটি কিন্ডারগার্টেনের পেছনের পুকুরপারে নিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়। একপর্যায়ে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা সেখান থেকে চলে যায়। তাকে প্রথমে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে এবং পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।