শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ জুলাই, ২০২১ ২৩:১০

শত বছরের স্বপ্ন পূরণের পথে

বাবুল আখতার রানা, নওগাঁ

শত বছরের স্বপ্ন পূরণের পথে
Google News

নওগাঁর কয়েক লাখ বাসিন্দার স্বপ্ন পূরণের পথে। জেলার ধামইরহাটের রাঙ্গামাটি বাজার ও তালতলী নামক স্থানে আত্রাই নদী পারাপারে শত বছর ধরে কোনো সেতু ছিল না। ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে কয়েক লাখ মানুষকে। বর্ষা মৌসুমে নৌকাই ছিল একমাত্র ভরসা। তবে এলাকাবাসীর শত বছরের দুর্ভোগ লাঘব হতে চলেছে। জানা গেছে, উপজেলার পশ্চিম অঞ্চল আলমপুর ও খেলনা ইউনিয়নের ভগবানপুর, গোপীরামপুর, দেবীপুর, ছিলিমপুর, আলমপুর, খেলনা, বরইল, চকহাড়া, খলনা, উদয়শ্রী, বৃষ্টপুর, ডাঙ্গাপাড়াহাট, কুটরইলহাট, চকমূলী, কৃষ্ণবল্লভ, মশলই গ্রামের মানুষ প্রতিদিন এই ঘাট দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে থাকেন। রাঙ্গামাটি বাজারটি ঘিরে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। বাজারের পাশে রয়েছে তালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি উচ্চ বিদ্যালয়, আলমপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়।

গ্রামগুলোর মানুষ সড়কপথে ধামইরহাট, পত্নীতলা ও নওগাঁ জেলা সদরে যেতে এ রাস্তা ব্যবহার করেন। কিন্তু সেতুর অভাবে দীর্ঘদিন ধরে জনসাধারণকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। লোকজন নদী পারাপারে নৌকার জন্য অপেক্ষা করছেন। অপর প্রান্ত থেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কৃষক, ব্যবসায়ীসহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ ছোট নৌকা দিয়ে পারাপার হচ্ছে। রাঙ্গামাটিতে সপ্তাহে দুই দিন হাট বসে। ওই হাটে গ্রামের মানুষ তাদের উৎপাদিত ধান, চাল, গম ও বিভিন্ন কৃষিপণ্য বর্ষায় নৌকার মাধ্যমে পারাপার করে থাকেন। এ ছাড়া ওইসব এলাকার উৎপাদিত আখ জয়পুরহাট সুগার মিলে নিতে ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার রাস্তা ঘুরে পৌঁছতে হয়। এতে সময় ও অর্থ দুই-ই অপচয় হয়। নৌকার মাঝি আবদুল হামিদ বলেন, ৩০ বছর ধরে তিনি এখানে নৌকা চালান। নৌকা দিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার লোক পারাপার করেন। প্রতিদিন কমপক্ষে ২০০টি মোটরসাইকেল পার করেন। তালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন বলেন, যোগাযোগের সমস্যার কারণে এই এলাকার শিক্ষার্থীরা অনেক পিছিয়ে রয়েছে।

বর্ষা মৌসুমে নৌকায় করে পারাপার ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় অনেকেই লেখাপড়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। অন্যদিকে সময় অপচয় হয়ে থাকে। আলমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান বলেন, এখানে একটি সেতু নির্মাণ দীর্ঘদিনের দাবি। উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী আলী হোসেন বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্যের সার্বিক প্রচেষ্টায় এ সেতু নির্মিত হছে। এ ছাড়া এলজিইডি নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলী মাকসুদুল আলমের তত্ত্বাবধানে সেতু এলাকার মাটি পরীক্ষা, দরপত্র প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। পরে সেতুটির নির্মাণের যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। রাঙ্গামাটি-তালতলী নামক স্থানে আত্রাই নদীতে ২৮০ মিটার দীর্ঘ এবং ৭ দশমিক ৩ মিটার প্রশস্ত সেতু নির্মিত হবে। আগামী তিন বছরের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

এই বিভাগের আরও খবর