শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ জুলাই, ২০২১ ২৩:০৫

ভাঙা সেতুতে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার

কাবুল উদ্দিন খান, মানিকগঞ্জ

ভাঙা সেতুতে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার
Google News

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার কুস্তা ইছামতি নদীর ওপর নির্মিত ভাঙা সেতু দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন মানুষ। বছরের পর বছর ধরে চলাচলের উপযোগী হয়নি সেতুটি। তবুও প্রতিদিন শত শত লোক প্রয়োজনের তাগিদে এ সেতু ব্যবহার করছেন। ঝুঁকিপূর্ণ সেতুতে চলাচলকারীরা যে কোনো সময় বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল। সেতুটি মেরামতের আশা ছেড়ে দিয়েছেন এলাকাবাসী। বিকল্প রাস্তা না থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত সেতুর ওপর বাঁশের সাঁকো দিয়ে যাতায়াতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই সেতু দিয়ে প্রতিদিন ১৫-১৬ গ্রামের লোকজন যাতায়াত করছেন। জানা যায়, ২০০২ সালে ইছামতি নদীর ওপর প্রায় ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। গত কয়েক বছরের নদী ভাঙনে সেতুর পশ্চিম পাশের অংশ বিলীন হয়ে যায়। পূর্ব পাশের দুটি পাটাতন ধসে গেছে। এ অবস্থায় স্থানীয়রা ক্ষতিগ্রস্ত সেতুর ওপরে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করে কোনো রকম যাতায়াতের ব্যবস্থা করেন। ঘিওর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অহিদুল ইসলাম টুটুল জানান, সেতুটি পুনর্নির্মাণের জন্য উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে কয়েক দফা আলাপ করেছি। শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস্তাটি দিয়ে ১৫-১৬ গ্রামের লোকজন যাতায়াত করে।

উপজেলা প্রকৌশলী সাজ্জাকুর রহমান জানান, আমি সরেজমিন ক্ষতিগ্রস্ত সেতুটি পরিদর্শন করেছি। এটি পুনর্নির্মাণের প্রস্তাব পাঠিয়েছিলাম। অ্যাপ্রোচ সড়ক না থাকায় সেতুটি করা যাচ্ছে না।

এই বিভাগের আরও খবর