শিরোনাম
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা

পদ্মায় নাব্য সংকটে আটকা পাথরবাহী জাহাজ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

পদ্মায় নাব্য সংকটে আটকা পাথরবাহী জাহাজ

নাব্য সংকটে পদ্মা নদীতে ১৮৩ টন পাথরবোঝাই একটি জাহাজ আটকে পড়েছে। এ কারণে ১১ দিন ধরে বাংলাদেশ ও ভারতের সুলতানগঞ্জ-ময়া নৌপথে পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রয়েছে। এমভি আতিয়া নামে জাহাজটি ভারতের ময়া থেকে বাংলাদেশের সুলতানগঞ্জ আসছিল। জানা গেছে, দুই দেশের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সহজ করতে প্রায় ৫৯ বছর পর ১২ ফেব্রুয়ারি চালু হয় সুলতানগঞ্জ-ময়া নৌপথ। এমভি আতিয়া ১৮৩ টন পাথর নিয়ে ময়া থেকে রওনা হয় ১৬ ফেব্রুয়ারি। মেঘনা ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের মাধ্যমে এই পাথর আমদানির এলসি খোলেন মনিরুজ্জামান নামে এক ব্যবসায়ী। সুলতানগঞ্জ ঘাট থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে বাংলাদেশ সীমান্তের চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ্মা নদীর হাকিমপুর চরে এসে জাহাজটি আটকা পড়ে। এ কারণে এই পথে অন্য কোনো জাহাজ চলাচল করতে পারছে না। একটি সূত্র জানায়, এ ধরনের জাহাজ চলাচলের জন্য পানির গভীরতা কমপক্ষে সাত ফুট হতে হয়। কিন্তু হাকিমপুর চর এলাকায় পানির গভীরতা আছে সাড়ে চার ফুটের মতো। এ কারণে পাথরবাহী জাহাজটি আটকে যায়। ওই জাহাজের পাথর বিকল্প উপায়ে আনতে ২০ ফেব্রুয়ারি সোনামসজিদ স্থলবন্দরের উপ-কাস্টমস কমিশনারের কাছে লিখিত আবেদন করেন ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান। গতকাল পর্যন্ত কোনো সাড়া পাননি।

সর্বশেষ খবর