Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ মার্চ, ২০১৯ ২০:১৩

বাহুবলে স্বাধীনতা দিবসে শিক্ষার্থীদের উপর হামলা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

বাহুবলে স্বাধীনতা দিবসে শিক্ষার্থীদের উপর হামলা

হবিগঞ্জের বাহুবলে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উদযাপন শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে হামলার শিকার হয়েছেন সানশাইন প্রি-ক্যাডেট এন্ড হাই স্কুল ও দ্য হোপ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষার্থীরা। এ হামলায় ওই দুই বিদ্যালয়ের ২০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠান শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে বাহুবল মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এ হামলার সাথে জড়িত থাকার ঘটনায় দিননাথ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে হাতেনাতে আটক করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। 

জানা যায়, আজ মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালন করতে বেশ কয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আমন্ত্রণ করে উপজেলা প্রশাসন। সেই আমন্ত্রণে মিরপুর থেকে উপজেলার শীর্ষ দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও অংশগ্রহন করেন। ওই দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা সব সময়ই সব ক্যাটাগরীতে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে।
আজও বেশ কয়েকটি খেলায় তারা প্রথম ও দ্বিতীয় হয়। এক পর্যায়ে একটি বাঁশি বাজানোকে কেন্দ্র করে তাদের সাথে সানশাইন স্কুলের শিক্ষার্থীদের কথা কাটাকাটি হয়। 

এরই জের ধরে বাহুবল সদরে অবস্থিত দিননাথ সরকারী হাই স্কুলের বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী জড়ো হয়ে মিরপুরের শিক্ষার্থীদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ হামলায় দুই প্রতিষ্ঠানে অন্তঃত ২০ জন আহত হয়। হামলার সময় মিরপুরের শিক্ষার্থীরা বাড়ি আসার জন্য বাহুবল মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে দাড়িয়ে ছিল।
তাৎক্ষনিক আহতদেরকে উদ্ধার করে বাহুবল হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানীয় চিকিৎসালয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
এ নিয়ে মিরপুর ও বাহুবলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

এ বিষয়ে সানশাইন প্রি-ক্যাডেট এন্ড হাই স্কুলের অধ্যক্ষ রণধীর চক্রবর্তী জানান, তারা আমাদের ছাত্রদের উপর অনেকবারই হামলা করেছে। যে কারণে আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে বাহুবল যেতে আগ্রহ প্রকাশ করি না। স্বাধীনতা দিবস বলেই সেখানে গিয়েছিলাম। 

বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জসীম উদ্দিনের মোবাইল ফোনে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, একটি বাঁশি নিয়ে তাদের মধ্যে হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় অভিযোগে হাতে নাতে দিননাথ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন ছাত্রকে আটক করেছি। আমি মিরপুরে আসছি, শিক্ষার্থীদের সান্তনা দিতে, প্রয়োজনে মামলা হবে।

তবে ছাত্র আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন বাহুবল মডেল থানার ওসি মো: মাসুক আলী। তিনি বলেন, অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফেরার পথে একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। কোন ছাত্রকে আটক করা হয়েছে এ বিষয়টি আমার জানা নেই।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য