শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ২০:৪৯

জামিন পেলেন সেই দিনমজুর আব্দুল মতিন

মহিউদ্দিন মোল্লা, কুমিল্লা

জামিন পেলেন সেই দিনমজুর আব্দুল মতিন

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জামিন পেয়েছেন কুমিল্লার মুরাদনগরের সেই দিনমজুর আব্দুল মতিন(৪৫)।

কুমিল্লার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানার আদালত তাকে এই জামিন দেন। বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্টের (ব্লাস্ট) জেলা প্রকল্প কর্মকর্তা অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছানা উল্লাহ এই জামিন আবেদন করেন। 

মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের মোচাগড়া গ্রামের দিনমজুর আব্দুল মতিনের ঘরে কেরোসিন কুপি জ্বললেও তাকে বিদ্যুতের বকেয়া বিলের জন্য হাতকড়া পরিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। এ বিষয়টি জানাজানি হলে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর চান্দিনা অফিস দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি করে। ইতিমধ্যে তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থল পরির্দশন করে আবদুল মতিনকে হয়রানির সত্যতা পেয়েছে। 

এদিকে জামিন পেয়ে আব্দুল মতিন কান্নাজড়িত কণ্ঠে এই প্রতিবেদককে বলেন, আমরা গরিব মানুষ। কেরোসিনের কুপি জ্বালাই। কখনও বিদ্যুতের বাতি জ্বালাইনি। টাকা দিয়েও বিদ্যুৎ সংযোগ পাইনি। তারপরও বকেয়া বিলের মামলায় আমাকে জেলে পাঠানো হয়েছে। আমাকে যারা হয়রানি করেছে তাদের বিচার চাই।

দেবিদ্বার জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার ও তদন্ত কমিটির প্রধান মৃণাল কান্তি চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আব্দুল মতিন নামের মিটারটি প্রায় কোয়ার্টার কিলোমিটার দূরে সফিকুল ইসলামের বাড়িতে সংযোগ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সফিকুল ইসলামও বিষয়টি অফিসকে জানায়নি এবং বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেনি। আব্দুল মতিন নোটিশ পেয়েও তার ঘরে বিদ্যুৎ না থাকায় বিষয়টি আমলে নেয়নি। যার কারণে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর চান্দিনা অফিসের জেনারেল ম্যানেজার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি ভুল বুঝাবুঝি, আমরা মামলাটি নিষ্পত্তি করেছি।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য