Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:২৪
আপডেট : ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:২৯

শেরপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের গুলিতে এক ব্যক্তি নিহত

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি

শেরপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের গুলিতে এক ব্যক্তি নিহত

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের গুলিতে ইদ্রিস আলী (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলির খোসা উদ্ধার এবং পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার যোগানিয়া কুত্তামারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত ব্যক্তি যোগানিয়া ইউনিয়নের কুত্তামারা গ্রামের ফজল রহমানের ছেলে ইদ্রিস আলী। 

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে কুত্তামারা গ্রামের সোহরাব আলী তার জমিতে শ্রমিক নিয়ে ধান কাটতে যায়। এসময় যোগানীয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যন ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান হবির লোকজন তাদের ধান কাটতে বাধা দেয়। পরে তারা চলে আসে। পরবর্তীতে সোহরাব আলী লোকজন নিয়ে আবার দুপুর একটার সময় ওই জমিতে ধান কাটতে যায়। এসময় চেয়ারম্যানের লোকজন তাদের ধাওয়া করে। এসময় উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া চলে।

এসময় চেয়ারম্যানের গুলিতে সোহরাব আলীর চাচাতো ভাই ইদ্রিস আলী গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাকে দ্রুত নালিতাবাড়ী হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইদ্রিসকে মৃত ঘোষণা করেন। 

এ ঘটনায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদরে পাঠায়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে আটক করে এবং ঘটনাস্থল থেকে গুলির খোসা উদ্ধার করে।

নিহতের স্ত্রী দিলরুবা বলেন, চেয়ারম্যান হবি ও তার লোকজন আমার স্বামীরে গুলি কইরা মারছে। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই।

নালিতাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. জাহিদ হাসান বলেন, মৃত অবস্থায় ইদ্রিস আলীকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে গুলির আঘাতে তার মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

নালিতাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদরে পাঠানো হয়েছে। খবর পেয়েই অভিযান চালিয়ে চারজনকে আটক করা হয়েছে। আর ঘটনাস্থল থেকে গুলির খোসা পাওয়া গেছে। এখন চেয়ারম্যান এবং তার ছেলে শান্ত দু'জনের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করা হবে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্ততি চলছে।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য