Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ মে, ২০১৯ ১৭:২৩

গম সংগ্রহ অভিযান উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে লটারি

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

গম সংগ্রহ অভিযান উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে লটারি

কৃষকের তুলনায় গম সংগ্রহের বরাদ্দ কম থাকায় ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে সরকারের নিকট সরাসরি গম বিক্রির জন্য লটারির মাধ্যমে কৃষকের তালিকা নির্ধারণ করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলার ৩৭ হাজার কৃষকের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে ১ হাজার ৮শ জন কৃষকের নামের তালিকা প্রণয়ন করা হয়। 

লটারির মাধ্যমে তালিকাভুক্ত ওই ১৮’শ কৃষক সরাসরি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা দুটি খাদ্য গুদামে মাথাপিছু ১ মে.টন হারে সরসারি গম বিক্রি করতে পারবেন বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। 

এ বছর ঠাকুরগাঁও জেলার ৫টি উপজেলায় ৬ হাজার মে.টন গম সংগ্রহ করা হবে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ পাওয়া উপজেলা বালিয়াডাঙ্গী। এ উপজেলায় ১৮’শ মে.টন গম সংগ্রহ করা হবে। 

তবে গম সংগ্রহ অভিযানে এবারই প্রথম লটারির মাধ্যমে কৃষকের তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। এর আগে সরকারিভাবে গম ক্রয় করা হলেও তাতে লাভবান হতে পারেনি কৃষক। সবই ছিল ব্যবসায়ীদের দখলে। এ পদ্ধতি গম সংগ্রহ করা হলে সরাসরি কৃষক উপকৃত হবে এমন ধারণা করেই ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। 

কৃষকের ভাগ্য নির্ধারণী লটারি অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আসলাম জুয়েল, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক মাজহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মোহাম্মদ আলী, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা নিখিল চন্দ্র বর্মন, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সুমন আহমেদ, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রহমান, ওসি এলএসডি শেখ আব্দুস সালাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ, ৮ ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ ও স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন। 

উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা নিখিল চন্দ্র বর্মন বলেন, এ বছর ১৮’শ মে.টন গম সরাসরি কৃষকের নিকট হতে সংগ্রহ করা হবে। উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ৩টি করে ২৭টি ব্লকে ভাগ করা হয়েছে। সে অনুযায়ী লটারির মাধ্যমে কৃষকের তালিকা প্রনয়ণ করা হয়েছে। সোমবার বিকাল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে গম সংগ্রহ অভিযান শুরু করা হবে। 

কৃষকরা জানান, উপজেলার নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানের উদ্যোগে লটারি করে গ্রম সংগ্রহ করা হচ্ছে। তা না হলে কৃষকের পরিবর্তে ব্যবসায়ী ও নেতারা লাভবান হতেন। লটারি করায় আমরা খুশি। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য