শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ জুন, ২০১৯ ১২:৫৫
আপডেট : ১৩ জুন, ২০১৯ ১৩:১৮

সৎ মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যার পর যুবকের আত্মহত্যা, মা দগ্ধ

বরগুনা প্রতিনিধি :

সৎ মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যার পর যুবকের আত্মহত্যা, মা দগ্ধ

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় রুহিতা গ্রামের শাজেনূর বেগম (৩০) নামের এক নারীর শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে হত্যার চেষ্টা করে দ্বিতীয় স্বামী বেল্লাল হোসেন। প্রায় এক মাস পূর্বে শাজেনূর বেল্লালকে একতরফা তালাক দেয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বুধবার রাত তিনটার দিকে বেল্লাল শাজেনূরের বসতঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। এসময় আগুনে পুড়ে শাজেনূরের প্রথম ঘরের সন্তান ১০ বছরের মেয়ে সখিনা আক্তার অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যায়।

জানা যায়, আগুনের ভয়াবহতায় শাজেনূর মেয়েকে নিয়ে বের হয়ে আসতে ব্যর্থ হয়। এক পর্যায় শাজেনূর ঘরের বাইরে এলে তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে দেয় বেল্লাল ও তার সহযোগীরা। আগুনে শাজেনূরের মুখমণ্ডল ব্যতীত শরীরের সমস্ত অংশ গুরুতর অগ্নিদগ্ধ হয়। স্ত্রীকে অগ্নিদগ্ধ করে বেল্লাল পাথরঘাটার তালতলা এলাকায় এসে গাছের সাথে গলায় ফাসঁ দিয়ে আত্মহত্যা করে। সকালে পুলিশ সখিনা ও বেল্লালের মৃতদেহ উদ্ধার করে বরগুনার মর্গে পাঠায়।

স্থানীয়রা জানায়, রাত তিনটার দিকে আগুন আগুন চিৎকার শুনে তারা ঘর থেকে বের হয়ে দেখেন শাজেনুরের ঘরে আগুন জ্বলছে। ১৫ মিনিটের মধ্যে ঘরটি পুড়ে যায়। পরে ঘর থেকে সখিনার পুড়ে যাওয়া লাশ উদ্ধার করা হয়। এব্যাপারে পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হানিফ মাহামুদ জানান, শাজেনূরকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল পাঠানো হয়েছে। দুটি লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনার মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিয়মিত মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য