শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:৪২

২০২২ সালের মধ্যে দেশ থেকে জলাতঙ্ক নির্মূলে চাই জনসচেতনতা

দিনাজপুর প্রতিনিধি :

২০২২ সালের মধ্যে দেশ থেকে জলাতঙ্ক নির্মূলে চাই জনসচেতনতা

২৫০ শয্যা বিশিষ্ট দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আহাদ আলী বলেছেন, ২০২২ সালের মধ্যে দেশ থেকে জলাতঙ্ক নির্মূল করতে চাই জনসচেতনতা। জলাতঙ্ক একটি মরণব্যাধি রোগ। বিড়াল, কুকুর, বেজি, শেয়াল ও বন্য জন্তু কাউকে কামড় দিলে সঙ্গে সঙ্গে খারযুক্ত সাবান অথবা ডিটারজেন্ট পাউডার দিয়ে ক্ষত স্থানে বিশ মিনিট ধুতে পারলে জলাতঙ্কের জীবাণু ৭০ ভাগ মুক্ত হবে। পরে হাসপাতালে গিয়ে নিয়ম মত ভ্যাকসিন দিলে জলাতঙ্ক রোগ থেকে মুক্ত হওয়া সম্ভব। 

রবিবার চিরিরবন্দর উপজেলার ঘুঘুরাতলী আমেনা বাকী স্কুল অ্যান্ড কলেজে সিভিল সার্জন অফিস দিনাজপুর এর আয়োজনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহাখালী ঢাকা’র সহযোগিতায় ২০২২ সালের মধ্যে দেশ থেকে জলাতঙ্ক নির্মূলের লক্ষ্যে জলাতঙ্ক রোগ সম্পর্কে উদ্বুদ্ধকরণ সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

এসময় আমেনা বাকী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. মিজানুর রহমান, এবি ফাউন্ডেশনের পরিচালক অধ্যাপক সামসুল হক বক্তব্য রাখেন। জলাতঙ্ক রোগ নিয়ে আলোচনা করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঢাকা’র সার্ভিলেন্স মেডিকেল অফিসার ডা. মো. রাব্বি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান ডা. মো. আজমল হক। বিকেল ৩টায় চিরিরবন্দর আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. বেলাল হোসেন এর সভাপতিত্বে জলাতঙ্ক রোগ প্রতিরোধে স্বাস্থ্য বিভাগের করণীয় ও সচেতনতা বৃদ্ধি বিষয়ে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. আহাদ আলী।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য