শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ জুন, ২০২০ ১১:২২

লাকসামে একই পরিবারের ৮ জনসহ ১২ করোনা জয়ীকে ছাড়পত্র

লাকসাম প্রতিনিধি

লাকসামে একই পরিবারের ৮ জনসহ ১২ করোনা জয়ীকে ছাড়পত্র

কুমিল্লার লাকসামে একই পরিবারের আটজনসহ ১২ করোনা জয়ীকে ফুলেল শুভেচ্ছায় হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছ। দীর্ঘদিন করোনার সঙ্গে লড়াই শেষে ওই ১২ জন করোনা যোদ্ধা বিজয়ী হয়েছেন।

লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্ত্বরে ওই ১২ জন করোনা জয়ী সুজন সাহা (৩৮), তৃষা রাণী সাহা (২৬), রাজন সাহা (৪২), ঝুমুর সাহা (৩৬), অরবিন্দ সাহা (৭২), শেফালী রানী সাহা (৬০), সাধনিক সাহা (১২), স্নেহা সাহা (১৪), মামুনুর রশীদ (২৫), সানা উল্লা (৫২), আলমগীর হোসেন (৩৮), আসিফ (২৪)-কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। পরে তাদেরকে সম্পূর্ণ সুস্থতার ছাড়পত্র প্রদান করে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। ওই সময় তারা করোনা জয়ীদের সুস্থ-সফল ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

ছাড়পত্র প্রদানকালে লাকসাম পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আবদুল আলী, প্যানেল মেয়র-২ কাউন্সিলর মো. আবদুল আলিম দিদার, করোনা র‌্যাপিড রেসপন্স টিমের সদস্য ডা. মো. আলমগীর হোসেন, ডা. মো. আবদুল হান্নান-সহ কর্মকর্তাবৃন্দ, নার্সসহ অন্যান্য কর্মচারিগণ উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় স্বাস্থ্যবিভাগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় এই পর্যন্ত ৬৭৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। তন্মধ্যে মধ্যে ৫৪৬ জনের রিপোর্ট এসেছে। এখানে এ পর্যন্ত ৮৮ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এবং ৪৫৮ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ। এখনো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে ১২৯ জনের রিপোর্ট। এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ১৩ জন সুস্থ হয়ে ওঠেছেন। মারা গেছে একজন। সুস্থ ১২ জনকে ছায়পত্র দেয়া হয়েছে। 
চিকিৎসাধীণ অন্যদের শারীরীক অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানা গেছে। নিবিড় পর্যবেক্ষণে তাদের চিকিৎসা দিয়ে আসছে করোনা র‌্যাপিড রেসপন্স টীম। লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আবদুল আলী বলেন, করোনাকে জয় করতে হলে মানসিক দৃঢ়তা দরকার। আজ যাদেরকে করোনা জয়ী হিসেবে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে তারা আমাদের টিমের পরামর্শ সঠিকভাবে মেনে চলায় দ্রুত করোনা থেকে সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন।

তিনি আরও বলেন, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে করোনার বিস্তার রোধ করা সম্ভব। তিনি সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।        


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর