শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ জুলাই, ২০২০ ১৫:৫০

পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবিতে চার শ্রমিক নিখোঁজ

পাবনা প্রতিনিধি

পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবিতে চার শ্রমিক নিখোঁজ

কুষ্টিয়ায় পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবিতে চার কৃষি শ্রমিক নিখোঁজ  হয়েছেন। নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারে ঘটনাস্থলে কাজ শুরু করেছে ফায়ার সার্ভিস।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে কুমারখালি উপজেলার চরসাদিপুর ইউনিয়নের সাদিপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ ব্যক্তিরা হলেন, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের নজু প্রামানিকের ছেলে জাকির হোসেন, হারান প্রামানিকের ছেলে জুয়েল প্রামানিক, আব্দুল জলিলের ছেলে শরিফুল ইসলাম ও রঞ্জিত প্রামানিকের ছেলে জুবায়েল হোসেন।

চরসাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন জানান, সকাল ১০টার দিকে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা এলাকার ১৩ জন কৃষি শ্রমিক ট্রলারযোগে পদ্মার চরে কাজে যাচ্ছিলেন। মাঝ নদীতে যাওয়ার পর হঠাৎ ট্রলারটি ডুবে যায়। এ সময় ৯ জন সাঁতার দিয়ে নদীর পাড়ে উঠতে সক্ষম হলেও চার জন পানিতে তলিয়ে যান। সহযাত্রীরা স্থানীয়দের সাথে নিয়ে উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়েও তাদের খুঁজে না পেয়ে পাবনা ও কুষ্টিয়ার ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে। প্রাথমিক চেষ্টায় তাদের সন্ধান না মেলায়, রাজশাহী বিভাগীয় ডুবুরি দলের সাহায্য চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।  

ট্রলারডুবিতে বেঁচে ফেরা কৃষিশ্রমিক হাবিবুর রহমান জানান, গত কয়েকদিন ধরেই আমরা ভেড়ামারা কুমারখালীর পদ্মার চরে ঘাস কাটি। মঙ্গলবার সকালেও একই উদ্দেশ্যে দুটি নৌকায় রওনা হই। সাদীপুর এলাকায় মাঝনদীতে হঠাৎ ট্রলারে পানি উঠতে শুরু করলে চোখের পলকে নৌকা ডুবে যায়। আমারা কয়েক জন কোনো মতে সাঁতার দিয়ে পাড়ে উঠেছি। কিন্তু আমার চাচাতো ভাই জুয়েলসহ আরও চার জনের কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। 

পাবনা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের উপসহকারী পরিচালক সাইফুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারে চেষ্টা চালাই। তবে নদীতে প্রচণ্ড স্রোত ও গভীরতা বেশী হওয়ায় অনেক চেষ্টা করেও আমারা তাদের সন্ধান পাইনি। পরে উদ্ধারকাজের জন্য রাজশাহী বিভাগীয় ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়েছে। তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছালে আবারও উদ্ধার তৎপরতা শুরু করা হবে।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য