শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ আগস্ট, ২০২০ ২০:১৩
আপডেট : ৯ আগস্ট, ২০২০ ২১:০৪

সান্তাহারে কিশোর শিহাব হত্যা মামলা

মাথা ন্যাড়া, দাড়ি কেটে আত্মগোপনে থাকা আসামি গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

মাথা ন্যাড়া, দাড়ি কেটে আত্মগোপনে থাকা আসামি গ্রেফতার
কিশোর শিহাব হত্যা মামলার প্রধান আসামি শিপলু চেহারার পরিবর্তন করে আত্মগোপনে ছিলেন

বগুড়ার সান্তাহারে আলোচিত কিশোর শিহাব হত্যা মামলার প্রধান আসামি শিপলু ও তার বাবাকে ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতারের পর আদমদীঘি থানায় নেওয়া হয়েছে। তাদের দেওয়া তথ্যানুযায়ী সেই হত্যাকাণ্ডে ব্যবহার করা ছুরি, রক্ত মাখা গেঞ্জি ও স্যান্ডেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার বেলা ১১টায় ঘটনাস্থল কদমা বেইলি সেতুর সামনে থেকে এসব উদ্ধার করা হয়।

কিশোর শিহাব হত্যার প্রধান আসামি শিপলু চেহারার পরিবর্তন করে আত্মগোপনে ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার দুপুরে ময়মনসিংহ থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদমদীঘি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি জানান, কিশোর শিহাব হোসেন হত্যা মামলার মূল আসামি ইলিয়াছ হোসেন শিপলু মাথা ন্যাড়া ও চেহারা পরিবর্তন করে তার বাবা এখলাছ উদ্দিনের সঙ্গে ময়মনসিংহে আত্মগোপন করেন। হত্যার ছয়দিন পর শনিবার দুপুরে আদমদীঘি থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে তারা ময়মনসিংহ অবস্থান করছেন। পরে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তাদের অবস্থান আরও নিশ্চিত হয় পুলিশ। এরপর ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর গ্রামের বাজারে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতার এড়াতে শিপলু মাথা ন্যাড়া ও দাড়ি কেটে চেহারার অমূল পরিবর্তন করেন।

উল্লেখ্য, ঈদের পরের দিন বিকেলে দমদমা উত্তর পাড়ার সোহাগের ছেলে শিহাবকে ভেবে গ্রামেরই পূর্ব পাড়ার সবজি বিক্রেতা হারুন অর রশিদের ছেলে শিহাবের গলায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। এ মামলার প্রধান আসামি করজবাড়ী গ্রামের এখলাছের ছেলে শিবলু ও অপর আসামি তার বাবা এখলাছ। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ
 


আপনার মন্তব্য