শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:৩৩

ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা সীমান্তবর্তী লামার ফাইতংয়ে দাবিকৃত মজুরি না দেওয়ার কারণে প্রতিবাদ করায় হাবিব উল্লাহ (৩৫) নামে পল্লী বিদ্যুতের এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। 

গত বৃহস্পতিবার রাত ৭টার দিকে ফাইতং ইউনিয়নের মগনামা পাড়ায় এ হামলার ঘটনা ঘটলেও শনিবার ভোর রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সে মারা যায়। হাবিব উল্লাহ চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের পুলেরছড়া গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে।

জানা গেছে, ফাইতং ইউনিয়নের মগনামা পাড়া এলাকায় আবুল কালামের বাড়িতে ছেড়া বৈদ্যুতিক তার ঠিক করতে যায় হাবিব। কাজ শেষে তার দাবিকৃত টাকা থেকে ৫ শত টাকা কম দেয়া নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে আবুল কালাম তার ভাইসহ ৪ জন মিলে হাবিব উল্লাহকে বেধড়ক মারধর করে। এসময় সে গুরুতর আহত হলে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে তার অবস্থা অবনতি হলে তাকে চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই দিন পরে সে মারা যায়।
 
কাকারা ইউনিয়নের বাসিন্দা শাহাব উদ্দিন জানান, হাবিব উল্লাহ একজন ইলেকট্রিক মিস্ত্রী। সে ৬ সন্তানের জনক। একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে তার পরিবার নিঃস্ব হয়ে গেল। 

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান বলেন, সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। কাজের মজুরি নিয়ে কথা কাটাকাটির জের ধরে আবুল কালামের নেতৃত্বে বাদশা, বাচ্চু ও পুতিয়া মিলে ইলেকট্রিক মিস্ত্রী হাবিব উল্লাহকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এ ঘটনায় কেউ এজাহার দেয়নি। লিখিত এজাহার পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর