শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২২:৪১

নাটোরে ব্যবসায়ী ছালাম হত্যাচেষ্টার এক মাসেও গ্রেফতার নেই

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে ব্যবসায়ী ছালাম হত্যাচেষ্টার এক মাসেও গ্রেফতার নেই

নাটোরে আলোচিত মুদি ব্যবসায়ী আব্দুস সালামকে হত্যাচেষ্টার এক মাস পেরিয়ে গেলেও এই ঘটনার মূল আসামি রয়েছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে। গত ২৯ আগষ্ট রাতে  শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত কেন্দ্রীয় মসজিদ মার্কেটে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যাচেষ্টা করা হয়। 

এদিন সন্ধ্যায় মসজিদ মার্কেটের 'বর্ষা টেলিকম' নামের প্রতিষ্ঠানের মালিক জহুরুল ইসলাম মোবাইল ফোনে বন্ধু আব্দুস সালামকে ডেকে নিয়ে চপ্পল দিয়ে গলা লক্ষ্য করে  কোপ দেয়। অল্পের জন্য লক্ষ্যভুষ্ট হয়ে চোয়ালে আঘাত করে গলার গভীর ক্ষত হয় । কেন্দ্রীয় মসজিদের নিচে অবস্থিত মার্কেটের একজন ব্যবসায়ী নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রকাশ্যে এই ঘটনা ঘটানোর জন্য শহরজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। 

খবর পেয়ে সেদিন রাতেই নাটোর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার কারণ অনুসন্ধান ও অপরাধীদের আটকে অভিযান শুরু করে বলে জানান ইন্সপেক্টর তদন্ত আব্দুল মতিন। ঘটনার পরের দিনই আব্দুস সালামের স্ত্রী দ্বীণ তানিয়া আফরোজ শবনম বাদী হয়ে নাটোর সদর থানায় জহুরুলকে প্রধান আসামি এবং অঞ্জত আরোও দুই জনকে আসামি করে হত্যাচেষ্টা মামলা করেন। মামলা দায়েরের এক মাস পেরিয়ে গেলেও পুলিশ একজন আসামিকেও গ্রেফতার করতে পারেনি। 

এ মামলার বাদী শবনম কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, গত এক মাসেও আমার স্বামীর হত্যাচেষ্টার প্রধান আসামিকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। আসামি ধরার তাগিদ দিলে উল্টো পুলিশ আমাদেরকেই আসামি ধরিয়ে দিতে বলছেন। তিনি নাটোরের পুলিশ সুপারের কাছে তার স্বামীর হত্যাচেষ্টায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সুব্রত কুমার মাহাতো বাদীর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের সর্বাধিক চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর