শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ অক্টোবর, ২০২০ ১৫:৩৫

চুরিতে বাধা দেয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রকে নির্যাতন, হাসপাতালে ভর্তি

নোয়াখালী প্রতিনিধি

চুরিতে বাধা দেয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রকে নির্যাতন, হাসপাতালে ভর্তি

নোয়াখালী সদর উপজেলায় চুরিতে বাধা দেয়ায় ব্লেড দিয়ে মো. নাঈম (১৩) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার সকালে স্থানীয় কিছু বখাটে এ নির্যাতন চালায়, তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিছে তা বলতে পারেনি শিশু ও তার পরিবার। 

নির্যাতনের শিকার শিশু নাঈম উপজেলার নোয়ান্নই ইউনিয়নের পশ্চিম নরোত্তমপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। সে স্থানীয় সালেহপুর দারুল উলুম মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণির ছাত্র। তাকে নোয়াখালী জেলা শহরের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। 

নির্যাতনের শিকার শিশুর পরিবার জানায়, রবিবার সকালে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে একটি ছেলে সুপারি চুরি করছে দেখে সে বাধা দিয়ে চলে যায়। এ সময় পিছন থেকে অচেনা তিনজন কিশোর তার চোখ ও মুখ ধরে পার্শ্ববর্তী বাগানে নিয়ে গিয়ে তাকে মারধর করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্লেড দিয়ে জখম করে। এক পর্যায়ে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে, পরে জ্ঞান ফিরলে বাগান থেকে বের হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পরিবারকে জানায়। দুপুরে তাকে জেলা শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। 

সুধারাম থানার ওসি নবির হোসেন জানান, গণমাধ্যম কর্মীদের মাধ্যমে বিষয়টি শুনেছেন। তবে কেউ অভিযোগ করেননি। খোঁজ খবর নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর