শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:৪১

চাঁপাইনবাগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে দুই ইউপি চেয়ারম্যানের কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় ছাত্রলীগ কর্মীরা হামলা চালিয়ে চেয়ার-টেবিল ও মোটরসাইকেল ভাঙচুরসহ ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় চত্ত্বরে। তবে এতে হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের উপস্থিতিতে উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভা চলাকালে মনাকষা ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা শাহাদাৎ হোসেন খুররম এর সাথে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. গোলাম কিবরিয়ার এলাকার উন্নয়ন নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মনাকষা ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন খুররম সভা কক্ষ ত্যাগ করলে বেলা দুইটার দিকে ছাত্রলীগের কতিপয় কর্মী উপজেলা কিচেন রুমে হামলা চালিয়ে দরজা জানালা, চেয়ার-টেবিলসহ আসবাবপত্র ভাঙ্গচুর করে এবং দুপুরের খাবারের প্যাকেট নষ্ট করে দেয়। পরে উপজেলা চত্ত্বরে থাকা ৮-১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুরসহ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিউলী বেগমের অফিসের জানলার কাঁচ ভাঙ্গচুর করা হয়। এসময় ছাত্রলীগের দু’পক্ষ নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে এবং ধাওয়া পাল্টা ধাওয়াসহ ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। 

সংবাদ পেয়ে সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোছাইনের নেতৃত্বে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে ঘটনাস্থল থেকে সংসদ সদস্যসহ শিবগঞ্জ পৌরসভার মেয়রকে নিরাপত্তা দিয়ে বাড়ি পৌছে দেন। 

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোছাইনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ঘটনার পরপরই তিনিসহ শিবগঞ্জ থানার সকল ওসি ও পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এতে করে কোন বড় ধরণের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি। তবে সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর