শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৪৮
আপডেট : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৫১
প্রিন্ট করুন printer

কার্যালয় দখল নিয়ে আজও উত্তেজনা জাফর উল্যাহ ও নিক্সনপন্থীদের

কামরুজ্জামান সোহেল, ফরিদপুর

কার্যালয় দখল নিয়ে আজও উত্তেজনা জাফর উল্যাহ ও নিক্সনপন্থীদের

ফরিদপুরের সদরপুরে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় দখল-পাল্টা দখলের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা বিরাজ করছে। বর্তমান এমপি মুজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী ও সাবেক এমপি কাজী জাফরউল্যাহ’র অনুসারীদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কোন্দল চলছিল। এরই অংশ হিসাবে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিভক্ত হয়ে পড়ে।

সম্প্রতি মুজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হবার পর আওয়ামী লীগের নেতারা স্থানীয়ভাবে আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করে। ফলে অনেকটাই কোণঠাসা হয়ে পড়ে কাজী জাফরউল্যাহ’র অনুসারীরা। ফরিদপুর-৪ আসনের তিনটি উপজেলা ভাঙা-সদরপুর-চরভদ্রাসনের বেশির ভাগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যানগন যোগ দেন নিক্সন চৌধুরীর সাথে। 

নিক্সন চৌধুরী ও কাজী জাফরউল্লাহ’র অনুসারীদের পাল্টাপাল্টি নানা কর্মসূচিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠে তিন উপজেলা। নিজেদের হাতে ক্ষমতা ধরে রাখতে সদরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়টি কব্জা করতে চান নিক্সনের অনুসারীরা। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সদরপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত দীর্ঘদিন ধরে সদরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়টি দখলে ছিল ফরিদপুর-৪ আসনের সাবেক এমপি ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্যাহ’র অনুসারীদের। প্রায় ১ মাস আগে নিক্সন অনুসারীরা দলীয় কার্যালয়টি তাদের দখলে নেয়। এসময় তারা সাবেক এমপি কাজী জাফরউল্যাহ’র ছবি সরিয়ে সেখানে বর্তমান সাংসদ নিক্সন চৌধুরীর ছবি টাঙিয়ে দেয়। কার্যালয় দখলে ক্ষুব্ধ হয় আওয়ামী লীগের একটি অংশ। 

এর জের ধরে গতকাল শুক্রবার ভোরে কাজী জাফরউল্লাহ’র অনুসারীরা নিক্সন চৌধুরীর সমর্থকদের দেওয়া তালা ভেঙে সেখানে নতুন তালা ঝুলিয়ে দেয়। এ ঘটনা জানাজানি হলে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে নিক্সনপন্থীদের মাঝে। দলীয় কার্যালয়ের তালা ভেঙে নতুন তালা মারার ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল করে নিক্সনপন্থীরা। পরে তারা কাজী জাফরউল্যাহ’র অনুসারীদের তালা ভেঙে ফেলে এবং নতুন আরেকটি তালা ঝুলিয়ে দেয়। এ ঘটনায় দুইপক্ষের নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর