শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:৩৮
প্রিন্ট করুন printer

গঙ্গাচড়ায় মাদকের আখড়া নিয়ে জনপ্রতিনিধিদের ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

গঙ্গাচড়ায় মাদকের আখড়া নিয়ে জনপ্রতিনিধিদের ক্ষোভ

রংপুর গঙ্গাচড়া উপজেলার বিভিন্নস্থানে মাদকের আখড়া গড়ে উঠায় স্থানীয় এমপি ও জনপ্রতিনিধিদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। মাদকের কারণে যুব সমাজ নৈতিক অবক্ষয়ের মুখোমুখি হচ্ছেন। মাদকের টাকা জোগার করতে অনেকেই জড়িয়ে পড়ছেন বিভিন্ন ধরনের অপরাধে। 

গঙ্গাচড়া উপজেলার চত্বরসহ বিভিন্ন জায়গায় দেখা মিলছে ফেন্সিডিলের খালি বোতল। আর এই ফেন্সিডিলে আসক্ত হচ্ছে যুবক, কিশোরসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। মাদকের কারণে কেউ কেউ ব্যবসা-বাণিজ্যের পুজি হারিয়ে পথে বসেছেন। আবার কেউ মাদকের তাড়নায় জড়িয়ে পড়ছেন অপরাধে। 

জানা গেছে, গঙ্গাচড়া উপজেলার ভরসার বাজার, হাজী বাজার, বাগেরহাট, মন্ডলেরহাট, শয়রাবাড়ী, নেংড়া বাজার, চন্দনেরহাটসহ ইউনিয়নগুলোর বিভিন্ন জায়গায় সহজেই পাওয়া যাচ্ছে ফেন্সিডিলসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক। মাদক সেবন বিক্রি বৃদ্ধির কারণ হিসেবে স্থানীয়রা মনে করছেন পুলিশের উদাসিনতা। 

এলাকাবাসীরা জানান, দুপুর গড়িয়ে বিকেল হলেই রংপুর নগরসহ বিভিন্ন এলাকার মাদকাসক্ত মানুষ ছুটছে মাদকের খোঁজে গঙ্গচড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়।

মাদকাসক্ত এক যুবক জানান, এখানে ফেন্সিডিল খুব সহজে পাওয়া যায়। তাই শহর থেকে এখানে মাদক সেবন করতে আসি। 

স্থানীয় সংসদ সদস্য বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, বিষয়টি শুনেছি। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও থানা প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে গঙ্গাচড়া উপজেলাকে মাদক মুক্ত করা হবে।

লক্ষ্মীটারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল্লাাহ আল-হাদী জানান, উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা সভায় গংগাচড়া মডেল থানার ওসি সুশান্তকে বিষয়টি জানানো হলেও তিনি জানান ধরতে না পারলে কি করবো। 

চেয়ারম্যান আরও বলেন, উপায় না পেয়ে নিজ উদ্যোগে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ৯ বার বিভিন্ন সময়ে ফেন্সিডিল এর প্রায় ৫শ’ বোতলসহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছি।

গঙ্গাচড়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম জানান, মাদক নির্মূলে আমাদের দুটি টিম সার্বক্ষণিকভাবে কাজ করছে। মাদকের বিষযে কাউকে ছাড় দেয়া হচ্ছে না। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর