শিরোনাম
প্রকাশ : ২ মার্চ, ২০২১ ২২:৩০
প্রিন্ট করুন printer

বরিশালে তরুণীকে আটকে রেখে যৌন নিপীড়ন, আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:

বরিশালে তরুণীকে আটকে রেখে যৌন নিপীড়ন, আটক ৩

ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে এক তরুণীকে কাজ দেয়ার কথা বলে বরিশালে ডেকে এনে আটকে রেখে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। ৪ মাস ১৯ দিন আটকে রাখার পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি তাকে পুলিশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ওই তরুণীর বাবার দায়ের করা মামলায় গত সোমবার আরিফুল ইসলাম সুমন, তার স্ত্রী হাবিবা আক্তার সাথী এবং তাদের বন্ধু মো. আরিফকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। 

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়া সেলের উপ-পরিদর্শক তানজিল আহম্মেদ জানান, ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আসামিদের মঙ্গলবার কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে। 

তানজিল আহম্মেদ জানান, ভুক্তভোগী ওই তরুণী টাঙ্গাইলের কালিহাতি এলাকার বাসিন্দা। নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান ওই তরুণী ঢাকায় গৃহপরিচারিকার কাজ করতো। গত প্রায় ৮ মাস আগে তার সাথে ফেসবুকে বরিশাল নগরীর ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের আরিফুল ইসলাম সুমনের পরিচয় হয়। সুমন ওই তরুণীকে বরিশালে একটি ভালো কাজ পাইয়ে দেয়ার আশ্বাস দেয়। এমনকি সে চাইলে সুমনের পরিবারের সঙ্গে থেকেও কাজ করতে পারবে বলে প্রতিশ্রুতি দেয়। এমন আশ্বাসে ওই তরুণী বরিশাল আসলে তাকে কাজ না দিয়ে সুমন ও তার স্ত্রী নিজ বাসায় আটকে রাখেন। এক পর্যায়ে তাদের বাসায় আরিফুলের বন্ধু আরিফ ওই তরুণীকে যৌন হয়রানি করে। ৪ মাস ১৯ দিন আটকে থাকার পর গত ২৮ ফেব্রুয়ারি আরিফুলের বাসা থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। 

বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান জানান, যৌন নিপীড়নের শিকার ওই তরুণীর বাবা বাদী হয়ে মানব পাচার ও প্রতিরোধ দমন আইনে ৩ জনের বিরুদ্ধে কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা করেছেন। তরুণীকে তার বাবার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর