শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ মে, ২০২১ ২১:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

শরীয়তপুরে খাদ্য গুদাম থেকে কালো বাজারে চাল বিক্রির অভিযোগ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুরে খাদ্য গুদাম থেকে কালো বাজারে চাল বিক্রির অভিযোগ
Google News

শরীয়তপুরের আংগারীয়া খাদ্য গুদাম থেকে ব্যবসায়ীদের কাছে কালো বাজারে চাউল বিক্রির অভিযোগ দীর্ঘদিনের। শ্রমিকের মাধ্যমে এক বস্তা এক বস্তা করে গুদাম থেকে চাউল সরানো হয় এমন অভিযোগ স্থানীয়দের। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদিক খাদ্য গুদামের সামনে গিয়ে দেখতে পান, গুদাম থেকে একজন শ্রমিক ও.এম.এস এর এক বস্তা চাউল বাজারে নিয়ে যাচ্ছে। গুদাম থেকে কিসের চাউল বাজারে নিচ্ছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি 'ডিলারের ঘরে চাউল দিচ্ছি' বলে চাউলের বস্তা ফেলে সটকে পড়েন।

স্থানীয় সাংবাদিকরা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনদিপ ঘরাইকে মুঠোফোনে জানান। ঘণ্টাখানেক পরে ছুটে আসেন ওই খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলিপ কুমার সরকার। তিনি বলেন, ও.এম.এস এর ডিলারের দোকানের থেকে এক বস্তা চাউল পাল্টানোর জন্য পাঠিয়ে ছিল। আমার শ্রমিকরা ওই চাউল পাল্টিয়ে দিয়েছে। অন্য কিছু না।

খাদ্য গুদাম থেকে এক বস্তা এক বস্তা করে চাউল সরানো হয় এমন অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, মানবিক কারণে ডিলারের এক বস্তা চাউল পাল্টিয়ে দিয়েছি। ওই চাউল নেয়ার সময় আপনাদের সামনে পড়েছে। তবে ওই খাদ্য কর্মকর্তা তার বক্তব্যের পক্ষে কোনো কাগজপত্র প্রদর্শন করতে পারেনি।

এ বিয়য়ে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো: নুরুল হক মিয়া বলেন, গুদাম থেকে এভাবে চাউল বের হওয়ার কোন সুযোগ নেই। মানবিক কারণে হয়তো এমনটা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখবো।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনদিপ ঘরাই বলেন, বিষয়টি আমি জেনেছি। কিভাবে গুদাম থেকে কোনো ডকুমেন্ট ছাড়া চাউল বাহিরে এসেছে- বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর