শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ জুন, ২০২১ ১৮:২৫
প্রিন্ট করুন printer

ভাতিজিকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ চাচার বিরুদ্ধে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

ভাতিজিকে শ্বাসরোধে
হত্যার অভিযোগ চাচার বিরুদ্ধে
প্রতীকী ছবি
Google News

জগন্নাথপুর উপজেলায় মাদ্র্রাসা পড়ুয়া নবম শ্রেণির এক  ছাত্রীকে (১৬) পারিবারিক বিরোধের জেরে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে চাচার বিরুদ্ধে। বুধবার দুপুরে ওই মাদ্রাসাছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরিবারের দাবি, ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে তার চাচা। পুলিশ বলছে, মেয়েটির শরীরে ধর্ষণের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। 

পরিবার জানায়, মঙ্গলবার নিজের কক্ষে ঘুমাতে যায় মেয়েটি। তার চাচা (৪০) পাশের কক্ষে ঘুমান। বুধবার সকালে পরিবারের লোকজন মেয়েটির কক্ষে গিয়ে বিছানায় তার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। মেয়েটির পার্শ্ববর্তী কক্ষটি তখন বন্ধ করে পালিয়ে যায় চাচা। বুধবার দুপুরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

পুলিশ জানায়, ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে যুক্তরাজ্য থেকে সংসার খরচের টাকা পাঠাতেন তার প্রবাসী নিঃসন্তান চাচা। এ নিয়ে বাড়িতে মেয়েটির সাথে বিরোধ বাঁধে বাড়িতে থাকা অভিযুক্ত চাচার। এই বিরোধের জেরে মেয়েটিকে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা পুলিশের। 

মেয়েটির বাবা বলেন, তার ভাই মঙ্গলবার রাতে তার মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে।  মেয়েকে হত্যার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় একটি দামি মোবাইল ফোনও নিয়ে গেছে তার ভাই। 

সুনামগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার কামরুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক তদন্তে পারিবারিক বিরোধের জেরে এই হত্যা সংঘটিত হয়েছে বলে প্রতীয়মান হয়েছে। তবে মেয়েটিকে শরীরে ধর্ষণের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। মেয়েটির হাতে ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি। 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

এই বিভাগের আরও খবর