৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৫:৫৬

কাপ্তাই হ্রদে কচুরিপানায় আটকে পড়া ৮ পর্যটককে উদ্ধার

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

কাপ্তাই হ্রদে কচুরিপানায় আটকে পড়া ৮ পর্যটককে উদ্ধার

রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে কচুরিপানায় আটকে পড়া ৮ পর্যটককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে ৯৯৯ ফোন পেয়ে বরকল উপজেলার শুভলং ইউনিয়নের কাপ্তাই হ্রদ থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত পর্যটকরা চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বাসিন্দা। বুধবার সকালে পর্যটকরা নিরাপদে তাদের বাড়িতে ফিরে যায়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থেকে ৮ জন পর্যটক রাঙামাটিতে ঘুরতে আসে। সকালে প্রকৃতির টানে রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে নৌ-ভ্রমণে যায় ওই পর্যটকরা। হ্রদ পাড়ি দিয়ে পৌঁছায় শহর থেকে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার দূরে শুভলং ঝর্ণায়। ঝর্ণায় ঘুরে বাড়ি ফেরার পথে হ্রদের মাঝখানে বিশাল কচুরিপানায় আটকে পড়ে পর্যটকবাহী বোর্ডটি। সারা বিকাল চেষ্ট চালিয়ে কচুরিপানা থেকে বের করতে পারেনি কান্ট্রি বোর্ড (ইঞ্জিন চালিত বোর্ড)। রাত গভীর হলে আতঙ্কিত হয়ে ফোন করে পুলিশের জাতীয় সেবা ৯৯৯ নাম্বারে।  ঘটনার খবর জানতে পেরে রাঙামাটি পুলিশ সুপার মীর মোদ্দাছ্ছের হোসেনের নির্দেশনায় ঘটনা দ্রুত রওনা দেয় পুলিশ সদস্যরা। পুলিশ হ্রদে সাঁতার কেটে ওই পর্যটকদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড আসা পর্যটক এস এম রিয়াদ জিলানী বলেন, আমরা আট জন ছিলাম। বোর্ড আটকে যাওয়ার পর অপরিচিত এলাকায় অন্ধকারের কারণে কিছুটা ভয় পেছি। তাই ৯৯৯-এ ফোন করেছি। আশা ছিল, প্রশাসন অবশ্যই আমাদের সাহায্য করবে। ফোনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পুলিশ এসে হাজির। অনেক কষ্ট করে আমাদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে। রাতে থাকার ব্যবস্থাও করে।

রাঙামাটি জেলা পুলিশ সুপার মীর মোদ্দাছ্ছের হোসেন জানান, রাঙামাটিবাসীর নিরাপত্তার পাশাপাশি পুলিশ দূর-দুরান্ত থেকে আগত পর্যটকদেরও নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ। বুধবার সকালে পর্যটকরা নিরাপদে তাদের বাড়িতে ফিরে গেছে। বাংলাদেশ পুলিশ জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ -এ কল করে যে কোনো সমস্যা জানালে পুলিশ সদস্যরা সহায়তার জন্য পৌঁছে যাবে। 


বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর