২ অক্টোবর, ২০২১ ১৬:৫৫
দিনাজপুর

ছাগল চুরির অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, আটক ১

দিনাজপুর প্রতিনিধি

ছাগল চুরির অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, আটক ১

দিনাজপুরের হাকিমপুরে ছাগল চুরির অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে। নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে ভাইরাল হয়ে গেলে নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। 

গতকাল শুক্রবার (১ অক্টোবর) হাকিমপুর উপজেলার মোল্লা বাজার নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার ১১ ঘণ্টা পর অভিযুক্ত ইউপি সদস্য নাজমুল ইসলামকে আটক করেছে হাকিমপুর পুলিশ।

ভুক্তভোগী আরিফ ও সৌরভ জানান, শুক্রবার স্কুল বন্ধ থাকায় বাবার মোটরসাইকেল নিয়ে তারা ঘুরতে যায় হিলির মোল্লা বাজার এলাকায়। তারা দুইজনেই বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। রাস্তার পাশে একটি সুন্দর ছাগলের বাচ্চা দেখতে পেয়ে তারা কোলে নিয়ে খেলা করে। এসময় কয়েকজন লোক আমাদের চোর বলে ধাওয়া করে। আমরা সেখান থেকে দ্রুত মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাবার সময় তারা আমাদেরকে রাস্তার উপর থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে ছাগল চুরির অভিযোগ এনে গাছের সাথে বেঁধে এলোপাতাড়ি ভাবে মারধর করতে থাকে।

এদিকে, সম্মানহানি হবে ভেবে ওই দুই ছাত্রের পরিবার বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চাইলেও গতকাল শুক্রবার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নির্যাতনের ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়ে। পরে বিষয়টি নজরে এলে অভিযুক্তদের ধরতে মাঠে নামে পুলিশ। 

হাকিমপুর-ঘোড়াঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজীব জানান, গতকাল শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নির্যাতনের একটি ভিডিও দেখে হাকিমপুর পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে। এরপর তাদের হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হয়। 

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় নাজমুল ইসলাম নামের এক ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে। ভিডিও ফুটেজ দেখে বাঁকিদেরও আটকের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর