২২ অক্টোবর, ২০২১ ২৩:৫৭

সীমান্ত এলাকা থেকে ১২ স্বর্ণের বার উদ্ধার, আটক ২

দিনাজপুর প্রতিনিধি

সীমান্ত এলাকা থেকে ১২ স্বর্ণের বার উদ্ধার, আটক ২

উদ্ধার স্বর্ণের বার (বাঁয়ে) ও আটক গোলজার।

দিনাজপুরের সীমান্ত এলাকায় পৃথক অভিযানে ১২টি স্বর্ণের বারসহ দুজনকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ও শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন-নজরুল ইসলাম (৪০) ও গোলজার (৫০)। গোলজার জেলার বিরামপুর উপজেলার কাটলার বাঁশিপাড়া এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে। আর নজরুল ইসলাম হাকিমপুরের রায়ভাগ গ্রামের আতাবুদ্দিনের ছেলে।

জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিরামপুরের কাটলা সীমান্ত এলাকা কাটলা বাজার থেকে ৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধারসহ গোলজারকে আটক করা হয়। অপরদিকে, বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে দিনাজপুরের হিলি সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারকালে ৪টি স্বর্ণের বার এবং একটি মোটরসাইকেলসহ নজরুলকে আটক করে বিজিবি। পরে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

বিরামপুর থানার ওসি সুমন কুমার মহন্ত জানান, বিরামপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতে সোনা পাচার করা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি টিম সীমান্তের কাটলা বাজার এলাকায় অবস্থান নেয়। পরে কাটলা বাজারে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় পুলিশ দেখে সোনার বারগুলো কাঠের গুড়ির নিচে রেখে পালানোর চেষ্টাকালে পুলিশ তাকে আটক করে। পরে কাঠের গুড়ির নিচ থেকে ৮টি স্বর্ণের বার জব্দ করা হয়। ৭৯ ভরি ১৪ আনা ৪ রতি ওজনের ৮টি স্বর্ণের বারসহ গোলজারকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার আদালতে মাধ্যমে দিনাজপুর কারাগারে পাঠানো হবে।

অপরদিকে, বিজিবি বাসুদেবপুর ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার নজরুল ইসলাম জানান, গোপন সূত্রে জানতে পারি যে একটি মোটরসাইকেলযোগে স্বর্ণ নিয়ে একজন চোরাকারবারি ভারতের দিকে যাবে। সেই সংবাদের ভিত্তিতে ব্যাটালিয়ন অধিনায়কের নির্দেশে ফোর্স নিয়ে সীমান্তের রায়ভাগ এলাকায় অবস্থান নেয় বিজিবি। এসময় একটি মোটরসাইকেল বিপরীত দিক থেকে রায়ভাগ সীমান্তের কাঁচা রাস্তার দিকে আসলে সেটিকে থামার সংকেত দেওয়া হয়। 

কিন্তু সংকেত পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে বিজিবি ধাওয়া দিয়ে নজরুল ইসলামকে আটক করে। তল্লাশি চালিয়ে তার মোটরসাইকেলের হেডলাইটের গ্লাসের ভেতর থেকে প্রায় ২৮ লাখ টাকার ৪৬৬ গ্রাম ওজনের ৪ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। এছাড়া তার কাছ থেকে চারটি সিমসহ দুইটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য প্রায় ৩০ লাখ ৩৯৮টাকা। পরে তাকে হাকিমপুর থানায় সোপর্দ করা হয় বলেও জানান তিনি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

সর্বশেষ খবর