৩ জুন, ২০২৪ ২০:০২
নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা

বিজয়ী ও পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ২০

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

বিজয়ী ও পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ২০

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী চেয়ারম্যান ও পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের সময় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে উভয় গ্রুপের ২০ জন আহত হয়েছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নের বাগুটিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নে দীর্ঘদিন বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মফিজ বিশ্বাস ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক বিশ্বাসের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। বাগুটিয়া গ্রামে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক বিশ্বাসের সমর্থক আব্দুর রশিদ বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রাথী মোটরসাইকেল মার্কার মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নুর পক্ষে ও ইউপি চেয়ারম্যান মফিজ বিশ্বাস সমর্থক কোবাদ বিশ্বাস পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী দোয়াত কলম মার্কার শামীম হোসেন মোল্লার পক্ষে অবস্থান নেন। এ নিয়ে বাগুটিয়া গ্রামে ভোট পরবর্তী সময়ে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এ উত্তেজনার অংশ হিসাবে সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে কোবাদ বিশ্বাস ও আব্দুর রশিদ সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দীর্ঘ সময় সংঘর্ষ চলে। এক পর্যায়ে পুলিশের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে শৈলকুপা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আনে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়। আহতদের চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মোটরসাইকেল মার্কার সমর্থক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক বিশ্বাস বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে বাগুটিয়া গ্রামে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মফিজ বিশ্বাস তার সমর্থকদের দিয়ে বাগুটিয়া গ্রামে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির চেষ্টা চালিয়ে আসছে। এ সংঘর্ষ তারই অংশ। এ ঘটনায়  নিত্যানন্দনপুর ইউপি চেয়ারম্যান দোয়াত কলম মার্কার সমর্থক মফিজ বিশ্বাস বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক বিশ্বাসের বাগুটিয়া গ্রামের সমর্থকরা তুচ্ছ অজুহাতে তার সমর্থকদের উপর হামলা চালাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এ ঘটনায় তার সমর্থকরা বসে বসে মার খেতে পারে না। তাই তারা প্রতিরোধ করেছে।

এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, দুইদল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরিবেশ শান্ত রাখতে বাগুটিয়া গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর