১৭ জুন, ২০২৪ ১৪:৫৫

ঐতিহাসিক গোর-এ শহীদ বড়মাঠে তিন লক্ষাধিক মুসল্লির নামাজ আদায়

দিনাজপুর প্রতিনিধি

ঐতিহাসিক গোর-এ শহীদ বড়মাঠে তিন লক্ষাধিক মুসল্লির নামাজ আদায়

মেঘলা আবহে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তায় উপমহাদেশের বৃহৎ ঈদগাহ দিনাজপুরের ঐতিহাসিক গোর এ শহীদ বড় ময়দানে ঈদের জামাতে লাখ লাখ মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করেন। শান্তিপূর্ণ নামাজ আদায়ে নেয়া হয় কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ঈদের দিন সোমবার ভোর থেকেই বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে ঈদ জামাতে মুসল্লিরা আসতে শুরু করেন। এবার বৃহৎ এই ঈদের জামাতে ৩ লক্ষাধিক মুসল্লি অংশ নেয় বলে আয়োজকদের দাবি।

বৃহৎ এ জামাতকে ঘিরে ওয়াচ টাওয়ার, চেকপোষ্ট ও ড্রোন, সিসি ক্যামেরায় পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি ছিল কঠোর গোয়েন্দা নজরদারি। মাঠের আশপাশে র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ, আনসার ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যান্য সদস্যরাও ছিলেন তৎপর।

ঐতিহাসিক গোর-এ শহীদ বড়ময়দানে ঈদের নামাজে অংশগ্রহণের সুবিধায় একজোড়া বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়। পঞ্চগড় ও পার্বতীপুর থেকে বিশেষ ট্রেন দুটি সকাল সোয়া ৭টায় এবং পৌন ৮টায় মুসল্লিদের নিয়ে দিনাজপুর স্টেশনে পৌঁছায় এবং ঈদের নামাজ শেষে সকাল সাড়ে ৯টায় ছেড়ে যায়।

ঈদ-উল আযহার ঈদ জামাতে ইমামতি করেন দিনাজপুরের জেনারেল হাসপাতাল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা শামসুল হক কাসেমি। নামাজ শেষে দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহসহ প্রধানমন্ত্রীর জন্য শান্তি ও সুস্থতা কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

বৃহৎ এ জামাতে অংশ নেন বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ, পুলিশ সুপার শাহ ইফতেখার আহম্মেদ, দিনাজপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র আবু তৈয়ব আলী দুলাল, বিচার বিভাগের কর্মকর্তা, প্রশাসনের কর্মকর্তা, বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারাসহ সর্বস্তরের মানুষ।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর