শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ নভেম্বর, ২০১৯ ২২:২৩

মরণোত্তর সম্মাননা চাই না : সুচন্দা

শোবিজ প্রতিবেদক

মরণোত্তর সম্মাননা চাই না : সুচন্দা

‘আমি মরণোত্তর সম্মাননা চাই না। একজন শিল্পী যদি তার সারা জীবনের কাজের স্বীকৃতি বেঁচে থাকতেই উপভোগ করতে না পারেন তাহলে তার মরণের পর সেই সম্মান দেওয়া অর্থহীন।’ এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করলেন খ্যাতিমান চলচ্চিত্রকার কোহিনূর আক্তার সুচন্দা। তার ক্ষোভের কারণ হলো, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৮ এর আজীবন সম্মাননার জন্য জুরি বোর্ড সুচন্দা ও অভিনেতা আলমগীরের নাম প্রস্তাব করে। এখন শোনা যাচ্ছে এই সম্মাননা থেকে সুচন্দাকে বাদ দেওয়া হচ্ছে। এমন খবর শোনার পর ব্যথিত সুচন্দা বলেন, যারা সিনিয়র শিল্পী আছেন তারা এখন প্রায় জীবনের শেষ প্রান্তে এসে দাঁড়িয়েছেন। তাদের যদি সম্মাননা জানাতে বিলম্ব করা হয় তাহলে তা সেই শিল্পীর প্রতি অবজ্ঞারই শামিল। সেই শিল্পী আর বেঁচে থাকতে এই সম্মান দেখে যেতে পারবেন না। এটি ঠিক নয়। তাই বছরে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে দুজন করে সিনিয়র শিল্পীকে আজীবন সম্মাননা দেওয়া উচিত। সুচন্দা বলেন, আমি ১৯৬৬ সালে চলচ্চিত্রে আসি, ‘জীবন থেকে নেওয়া’সহ অসংখ্য কালজয়ী ছবিতে অভিনয় করে দেশ-বিদেশ থেকে সম্মাননা লাভ করি। চলচ্চিত্র প্রযোজনা ও পরিচালনা করেও প্রশংসিত ও সম্মানিত হই। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধেও অংশগ্রহণ করি। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর স্বামী প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার জহির রায়হানকে হারাই। জীবনে অনেক কিছু হারিয়ে আজ জাতীয় পুরস্কারে আজীবন সম্মাননাও হারাতে বসেছি। এ জীবনে আর কত কষ্ট আমাকে সইতে হবে। আজ এ প্রশ্ন সরকার ও জাতির কাছে রাখলাম আমি।


আপনার মন্তব্য