শিরোনাম
৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১৩:৪৬

বয়সের কারণে শুনতে হচ্ছে কটাক্ষ, বিস্ফোরক লারা দত্ত

অনলাইন ডেস্ক

বয়সের কারণে শুনতে হচ্ছে কটাক্ষ, বিস্ফোরক লারা দত্ত

লারা দত্ত।

মিস ইউনিভার্স হয়ে ভারতের মুখ উজ্জ্বল করেছিলেন এক সময়। গ্ল্যামার তাকে ঘিরে রাখত। সময় থেমে থাকে না। লারা দত্তের বর্তমান বয়স ৪৩ বছর। আর এই বয়সের কারণেই নাকি মিস ইউনিভার্সকেও শুনতে হচ্ছে কটাক্ষ। ক্যামেরার সামনে এসে খোলাখুলি এ নিয়ে কথা বললেন তিনি।

লারা জানিয়েছেন, অভিনেত্রীর বয়স বাড়লেই বলিউড ইন্ডাস্ট্রি সদয় হয় না আর। আভিজাত্যকে সঙ্গী করে বয়স বাড়াকে মানিয়ে নেওয়ার ইচ্ছের মুখে বাধা হয়ে দাঁড়ায় এই ইন্ডাস্ট্রিও। কমে যায় গুরুত্ব দেওয়ার স্বদিচ্ছা। শুধু কি ইন্ডাস্ট্রি? লারা জানিয়েছেন দর্শকের একটা বড় অংশের মুখ থেকেও শুনতে হয় একের পর এক কুৎসিত মন্তব্য। 

কেউ লেখেন, “আরে ও তো মোটা হয়ে গিয়েছে”। আবার কেউ লেখেন, “ও তো বুড়ি”। কাজল থেকে শুরু করে মাধুরী- সবাইকে এই কটাক্ষের শিকার হতে হয় বলে লিখেছেন লারা। যদিও নীনা গুপ্তা, রত্না পাঠক শাহ যেভাবে নিজেদের কাজের মধ্যে দিয়ে আজও প্রমাণ করে চলেছেন তা লারার কাছে অনুপ্রেরণার বলে জানিয়েছেন তিনি।

৪০ বছরের পর কাজ করছেন লারা নিজেও। সম্প্রতি তাকে দেখা গেছে ‘বেল বটম’ ছবিতে। দিনের পর দিন কটাক্ষ শুনতে কি তিনি ক্লান্ত? লারা জানিয়েছেন, তার একটি উপকার হয়েছে। তিনি মিস ইউনিভার্স হয়েছিলেন বলেই সব সময় তাকে গ্ল্যামারাস দেখতে লাগতেই হবে দর্শকের এমন চাহিদার থেকে আজ তিনি মুক্ত। এই মুহূর্তে তিনি যে অন্য ধারার চরিত্রে অভিনয় করতে পারছেন, তাতেই তিনি আনন্দিত।

বেল বটমে লারার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছিল। তবে অভিনয়ের থেকেও চর্চা হয়েছিল তার লুক ও তার প্রস্থেটিক মেকআপ নিয়ে। এই মুহূর্তে হাতেও রয়েছে বেশ কয়েকটি কাজ। এদের মধ্যে উল্লেখ্য ‘হিকাপ্স অ্যান্ড হুকাপ্স’, ‘হান্ড্রেড’। ‘কন বানেগা শিকারওয়াতি’ সহ অন্যান্য।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর