শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:৩১
আপডেট : ১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:৫০
প্রিন্ট করুন printer

"কোন বাংলাদেশি যদি খেতে নাও পারে; সে আর যাই হোক ভারতে যাবে না"

আমিনুল ইসলাম

আমিনুল ইসলাম

আমার দু'টো মাস্টার্স ডিগ্রী। সমাজ বিজ্ঞানে মাস্টার্স করেছি দেশে। বিদেশে দ্বিতীয় মাস্টার্স করেছি এশিয়ান স্টাডিজে। আমার মেজর ছিল- সাউথ এশিয়ান স্টাডিজ। অর্থাৎ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর আর্থ-সামাজিক-রাজনৈতিক বিষয়গুলো নিয়ে আমাকে পড়তে হয়েছে। বাংলাদেশ নিয়ে যেমন পড়েছি। ভারত কিংবা দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশ গুলো নিয়েও পড়তে হয়েছে। 

আমি আমার দ্বিতীয় মাস্টার্স করেছি সুইডেনের সবচাইতে ভালো ইউনিভার্সিটিতে। যেটি সব সময়ই পৃথিবীর সেরা ১০০ ইউনিভার্সিটির তালিকায় থাকে। কেউ আবার ভেবে বসবেন না নিজেকে জাহির করার জন্য এইসব লিখছি। লিখছি পুরো ব্যাপারটা বুঝিয়ে বলার জন্য। 

ভারত হচ্ছে এমন একটা দেশ যেই দেশের অনেক জায়গায় গেলে আপনার মনে হবে ইউরোপ-আমেরিকায় চলে এসেছেন। জায়গাগুলো এতোটাই চমৎকার। দেশটি অর্থনীতিতেও বেশ এগিয়েছে। সেই সঙ্গে জ্ঞান-বিজ্ঞান-শিক্ষায়ও তারা এগিয়েছে। 

সেই সঙ্গে এই দেশটির এমন অনেক জায়গা আছে, যেখানে মানুষ দুই বেলা খেতে পারে না। কোটি কোটি মানুষ এখনও পাকা পায়াখানা পর্যন্ত ব্যবহার করার সুযোগ পায় না। এখনও দেশটির এমন অনেক অঞ্চল আছে, যেখানে মেয়ে জন্মালে সঙ্গে সঙ্গে হত্যা করা হয়। এমন অনেক অঞ্চল আছে যেই এলাকা মেয়ে শূন্য হয়ে গেছে। 

সেই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন- "বাংলাদেশের গরীবরা খেতে পায় না, তাই ভারতে আসে।" 

আমার ঠিক জানা নেই কোন হিসেবে এই লোক এই কথা বলেছেন। আমি হলফ করে বলতে পারবো- সামগ্রিক ভাবে ভারতের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বাংলাদেশের চাইতে অনেক অনেক খারাপ। এই নিয়ে আমার মনে কোন রকম সন্দেহ নেই। 

ভারতে অনেক বড় বড় শহর আছে। অনেক ধনী মানুষ আছে। অনেক ইন্ডাস্ট্রি আছে। অনেক ভালো ভালো ইউনিভার্সিটি আছে। তারা শিক্ষা, জ্ঞান-বিজ্ঞানে ভালো করছে। কিন্তু সেটা কোন ভাবেই পুরো ভারতকে প্রতিনিধিত্ব করে না। 

তাছাড়া সামাজিক অসমতাতে এমনিতেই ভারত আমাদের চাইতে পিছিয়ে। অথচ এই মন্ত্রী কিনা বলে বসেছেন- "বাংলাদেশিরা খেতে পায় না। এই জন্য ভারতে আসে!"  

দুই বেলা ঠিক মতো খেতে পায় না, এমন হিসেব করলে মনে হয় ভারতে কোটি কোটি মানুষ পাওয়া যাবে। আমারতো ধারণা কোনও বাংলাদেশি যদি খেতে নাও পারে; সে আর যাই হোক ভারতে যাবে না। যাবার জন্য হাজারটা দেশ আছে। 

শুধুমাত্র স্থানীয় রাজনীতির জন্য একটা দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হয়ে তিনি আমাদের দেশের মানুষজনদের নিয়ে এমন কথা বলতে পারেন না। তিনি একটা অন্যায় করেছেন। প্রতিটা বাংলাদেশের নাগরিকের উচিত তার এই মন্তব্যের প্রতিবাদ করা।


(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ