২৮ মে, ২০২২ ১৪:২৭

“আম জনতা মানেই মহান” -এইটা একটা বড়সড় ফ্যান্টাসি

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী

“আম জনতা মানেই মহান” -এইটা একটা বড়সড় ফ্যান্টাসি

নুসরাত ইমরোজ তিশা ও মোস্তফা সরয়ার ফারুকী (ফারুকীর ফেসবুক থেকে সংগৃহীত ছবি)

আমি এর আগেও অনেকবার লিখেছি “আম জনতা মানেই মহান” এইটা একটা বড়সড় ফ্যান্টাসি। আম জনতার মধ্যে মহানও থাকতে পারে, আবার টক্সিকও থাকতে পারে। আমেরও আছে রকমফের। ফজলি আম, ল্যাংড়া আম, হিমসাগর- আরও কত কি! আমি যখন ছবি বানাইতে আসি তখন বড় অংশের আম দেখতো ডিপজল সাহেবের ছবি। আমরা এসে করতে চেষ্টা করলাম কি- চালু আমের উপযোগী হিসেবে নিজেকে তৈরি না করে, আমার স্বরে রেসপন্ড করতে পারে এরকম একটা আম তৈরি করার চেষ্টা করলাম।

ইদানীং আমাদের আমের অবস্থা কি এটা নানা ইন্ডিকেটর দিয়ে বোঝার চেষ্টা করি। এর মধ্যে একটা ইন্ডিকেটরতো সোশ্যাল মিডিয়ায় কমেন্ট অতি অবশ্যই।

কালকে তিশার পেজে একটা ছবি পোস্ট দেয়া হয়, এআর রহমানের সাথে ডিনারের। সেখানে লেখা হয়, ইলহাম যখন মায়ের গর্ভে ছিলো তখন আমরা ওকে নানারকম গান শোনাতাম। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ও রেসপন্ড করতো এ আর রহমানের মেয়ে খাদিজার গাওয়া “ফারিশতো (ফেরেশতা)” গানটা। সাথে সাথে একদল মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়লো যাদের নিজেদের বেহেশত কনফার্ম হয়ে গেছে, এখন অন্যদের জন্য বেহেশতের টিকিট হাতে নিয়ে ঘুরছে। দলে দলে কমেন্ট করছে, ‘গান না শোনাইয়া কোরআন তেলাওয়াত শোনানো উচিত ছিলো’। ‘আপনারা নাস্তিক, কবরের কথা ভাবেন। এইসব ডিজে গান শোনাইয়া কি লাভ’? এরা এমনই বেকুব যে একবার ফারিশতো গানটা চালাইয়াও দেখে নাই যে, ঐটা নবী করিমের প্রশংসাসূচক একটা গান। এরা শুধু তাদের নিজের জন্য কি ঠিক সেটাই নির্ধারণ করবে না, আপনার জন্যও কি ঠিক সেটাও নির্ধারণ করে দিবে।

তিশা ফেয়ারলি ধার্মিক মানুষ। নামাজ-রোজা-কোরআন তিলাওয়াত এগুলা তার ডেইলি রুটিনের মধ্যে থাকে। তাকেই যদি এইরকম উদ্ভট কমেন্ট শুনতে হয়, তাহলে ভাবেন যে মানুষ এগুলোর মধ্যে নাই তাকে কি কি শুনতে হতে পারে?

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর