শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ০০:০০

মুহিত যাচ্ছেন না নৌকাবাইচ স্থগিত

মুহিত যাচ্ছেন না নৌকাবাইচ স্থগিত

অবশেষে বন্যার মধ্যে সুনামগঞ্জে আয়োজিত নৌকাবাইচ উৎসবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত যাচ্ছেন না। ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতি এ নৌকাবাইচ উৎসবের আয়োজন করেছিল। আজ বৃহস্পতিবার বিকালে নৌকাবাইচ উৎসবস্থলের মঞ্চ নির্মাণের তোড়জোড় চলছিল। মাইকিং সম্পন্ন হয়েছিল। জেলাজুড়ে ব্যানার, পোস্টার শোভা পাচ্ছিল। কিন্তু বানভাসি মানুষের দুঃখ-দুর্দশার মুখে এ ধরনের নৌকাবাইচ উৎসব স্থগিত করা ও অংশগ্রহণ না করার জন্য গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনে পীর হাবিবুর রহমানের একটি কলাম ছাপা হয়েছিল। সেখানে মানবিক কারণে মানুষের আকাক্সক্ষা, অনুভূতিকে লালন করে বন্যাদুর্গত মানুষদের সমস্যা সমাধান করার পর যে কোনো সময় এ উৎসব আয়োজনের অনুরোধ জানানো হয়। জানা যায়, সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লেখাটি পড়ার পর মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে এই সময়ে এ ধরনের উৎসবে যোগদান না করতে অর্থমন্ত্রীকে পরামর্শ দেন। একই সঙ্গে প্রবীণ পার্লামেন্টারিয়ান সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত জেলার সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ মতিউর রহমানের সঙ্গে আলোচনা করে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে আলোচনা করেন। তিনি অর্থমন্ত্রীকে বলেন, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলার পর পরবর্তী একটি দিনক্ষণ নির্ধারণ করে আমরা আপনাকে নিয়েই একটি বর্ণাঢ্য নৌকাবাইচ উৎসবসহ সুনামগঞ্জের সব মহলকে নিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে চাই। বাস্তবতা উপলব্ধি করে অর্থমন্ত্রী নিজেও নৌকাবাইচ নিয়ে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছিলেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ ও সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের অনুরোধ গ্রহণ করেন। ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতি ও স্থানীয় প্রশাসনকে তার যোগদানের ব্যাপারে অপারগতা জানিয়ে দেওয়া হয়। বিকালের মধ্যেই আয়োজকরা আজকের নৌকাবাইচ উৎসব স্থগিত ঘোষণা করে দেন। বিভিন্ন উপজেলা চেয়ারম্যান ও স্থানীয় প্রশাসনকেও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাধারণ) জানিয়ে দেন। উল্লেখ্য, ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতির সভাপতি বিএনপি-জামায়াত জমানার কুমিল্লার ডিসি ও বর্তমান যুগ্ম-সচিব মিজানুর রহমান আগস্ট মাসেই এ নৌকাবাইচ উৎসবের আয়োজন করার উদ্যোগ নেন। কিন্তু সুনামগঞ্জ সদরের সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ শোকাবহ আগস্ট মাসে এ ধরনের উৎসবের ব্যাপারে সম্মতি না দিতে অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানকে পরামর্শ দেন। পরবর্তীতে ৪ সেপ্টেম্বর দিনক্ষণ নির্ধারণ হয়। তখন বন্যা পরিস্থিতি ছিল না। কিন্তু সুরঞ্জিত সেনগুপ্তও আগস্ট মাস এবং বন্যা পরিস্থিতির মুখে নৌকাবাইচ আয়োজনে নারাজ ছিলেন। তবুও অতি উৎসাহী ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতির সভাপতি আমলা মিজানুর রহমান নৌকাবাইচের আয়োজন করেন। নানা মহলকে ধরে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকেও সম্মত করান। স্থানীয় জেলা পরিষদ প্রশাসকের সঙ্গে মিজানুর রহমানের আগাগোড়াই যোগাযোগ ছিল। বিশেষ অতিথির তালিকায় জেলার সংসদ সদস্য ও তার সঙ্গে সুনামগঞ্জ পৌর মেয়রকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়। নৌকাবাইচ উৎসব সফল করতে জেলাজুড়ে চাঁদাও তোলা হয়। জামালগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ শামসুল আলম তালুকদার জুনু মিয়া গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থেকে তারা বড় সুসজ্জিত নৌকা ভাড়া করেছিলেন। চাপের মুখে তাদের এটি করতে হয়েছিল। এমনকি তাদের বাজেটে তিন লাখ টাকা খরচ করা হয়েছিল, যা জামালগঞ্জের অনেকেই আর্থিক অনুদান দিয়েছিলেন। সূত্র জানায়, জেলাজুড়ে এভাবেই সরকারি আমলা হওয়ার সুবাদে ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান প্রতিটি উপজেলায় প্রভাব খাটিয়েছিলেন নৌকাবাইচের জন্য চাঁদা তুলে নৌকা নিয়ে আসার। এদিকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আজকের কর্মসূচি বাতিল করায় সুনামগঞ্জের সব মহলই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
Bangladesh Pratidin

Bangladesh Pratidin Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম,

নির্বাহী সম্পাদক : পীর হাবিবুর রহমান । ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত। ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫। ই-মেইল : [email protected] , [email protected]

Copyright © 2015-2019 bd-pratidin.com