Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ অক্টোবর, ২০১৭ ২৩:০৯

কুমিল্লায় গ্রেফতারি পরোয়ানা

খালেদা জিয়া দেশে ফিরবেন নভেম্বরে

আ স ম মাসুম, যুক্তরাজ্য

খালেদা জিয়া দেশে ফিরবেন নভেম্বরে

চিকিৎসার জন্য লন্ডন সফররত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দেশে ফিরছেন নভেম্বর মাসের ৩ বা ৪ তারিখ। যুক্তরাজ্য বিএনপির একাধিক শীর্ষস্থানীয় নেতা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন বিএনপি নেতা জানান, এমিরেটসের একটি ফ্লাইটে তিনি বাংলাদেশ যাবেন। যাওয়ার পথে বেগম জিয়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে একটি যাত্রাবিরতি নিবেন। এ সময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিএনপির নেতাদের সঙ্গে এক সংক্ষিপ্ত বৈঠক করবেন বলেও জানা যায়। দেশে ফিরে ৭ নভেম্বর বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালনকালে আগামী নির্বাচন নিয়ে পরিকল্পনা সারা দেশের নেতা-কর্মী ও দেশবাসীর কাছে তুলে ধরার কথাও রয়েছে বলে জানান যুক্তরাজ্য বিএনপির শীর্ষস্থানীয় এই নেতা। ১৫ জুলাই চোখের চিকিৎসার জন্য লন্ডন সফরে যান বেগম জিয়া। তবে এ সফরে বিএনপি অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বলে জানা গেছে। বিশেষ করে যে কোনো মূল্যে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে মা-ছেলে ঐকমত্যে পৌঁছেছেন। নির্বাচন ঘিরে আগামী এক বছরের পরিকল্পনা করা হয়েছে। নির্বাচনের জন্য ৩০০ আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীরও একটি তালিকা সম্পন্ন হয়েছে। এ ছাড়া বেগম জিয়া ব্রিটেনে বসবাসকারী বিজেপির দুজন শীর্ষস্থানীয় নেতার সঙ্গে বৈঠক করেছেন বলেও জানা গেছে। আগস্ট মাসের শেষ সপ্তাহে লন্ডনেই এ বৈঠক সম্পন্ন হয়। এর বাইরে বিভিন্ন রাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ও প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের অনেক খবর কমিউনিটিতে ঘুরলেও এসব বিষয়ে কোনো খবর যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতাদের কেউ জানেন না। এ ছাড়া বেগম জিয়া তারেক রহমানের বাসায় বসবাস করলেও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক ও সাধারণ সম্পাদক কয়সর আহমেদ ছাড়া সিনিয়র আরও দু-তিনজন নেতা দেখা করার সুযোগ পেয়েছেন। তবে দেশে ফেরার আগে ব্রিটেন ও ইউরোপের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে একটি সমাবেশ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা : কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাসে পেট্রলবোমা হামলায় আটজন নিহতের ঘটনার মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন কুমিল্লার দায়রা আদালত। একই সঙ্গে ২০-দলীয় জোটের আরও ৪৫ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। কুমিল্লার জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেসমিন আরা বেগম গতকাল এ আদেশ দেন। এ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান লিটন জানান, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোরে ২০-দলীয় জোটের অবরোধের সময় চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি বাসে পেট্রলবোমা মারে দুর্বৃত্তরা। এতে আট যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান। আহত হন ২০ জন। এ ঘটনায় জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক এমপি ডা. আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহেরকে প্রধান আসামি করে ৫৬ জনের নাম উল্লেখ এবং ২০ জনকে অজ্ঞাত আসামি দেখিয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় মামলা করা হয়। মামলায় খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ছয় নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়। সোমবার খালেদা জিয়াসহ ৭৮ জনের বিরুদ্ধে কুমিল্লা আদালতে তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই মোহাম্মদ ইব্রাহিম চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত চার্জশিট গ্রহণ করে খালেদা জিয়াসহ ৪৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু, অ্যাডভোকেট নাজমুস সা’দত ও অ্যাডভোকেট বদিউল আলম সুজন।

বিএনপির বিক্ষোভ : কুমিল্লার আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেলা বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল। আদেশ দেওয়ার পরপর কুমিল্লা আদালত এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে নগরীর কান্দিরপাড় দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মোস্তাক মিয়া জানান, চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদল মঙ্গলবার (আজ) দেশের সব জেলা, উপজেলা, মহানগর, পৌর ও কলেজ ইউনিটে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর