Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৬

ধর্মের অপব্যবহার রুখে দিন সামাজিকভাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক

ধর্মের অপব্যবহার রুখে দিন সামাজিকভাবে

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ধর্মকে ব্যবহার করে কেউ সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা করলে তাকে সামাজিকভাবে প্রতিহত করুন। তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক হোন। ধর্ম মানুষকে সত্য ও ন্যায়ের পথ দেখায়, জনকল্যাণে অনুপ্রাণিত করে। কোনো ধর্মই জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ অথবা সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করে না। কেউ যদি আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা চালায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি। গতকাল জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বঙ্গভবনে হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্যদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আমাদের সুমহান ঐতিহ্য। আদিকাল থেকে দেশের হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানসহ সবার ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও পারস্পরিক সহমর্মিতার ভিত্তিতে গড়ে উঠেছে এ ঐতিহ্য। বাংলাদেশের প্রতিটি ধর্মীয় উৎসব পালিত হয় যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য আর আনন্দ উল্লাসের সঙ্গে। সবার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে প্রতিটি উৎসব হয়ে ওঠে সার্বজনীন। আর এভাবেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে আমাদের অটুট সামাজিক বন্ধন।

বঙ্গভবনের দরবার হলে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য, বিচারপতি, ভারতের হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, রামকৃষ্ণ মঠের অধ্যক্ষ স্বামী ধ্রুবেশানন্দ মহারাজসহ হিন্দু ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ পুঁজা উদযাপন পরিষদ, বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তারা রাষ্ট্রপতিকে জন্মাষ্টমীর ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। অভ্যর্থনায় রাষ্ট্রপতির সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।


আপনার মন্তব্য