Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৮

চকবাজারের আগুন বিশ্ব মিডিয়ায়

তানভীর আহমেদ

চকবাজারের আগুন বিশ্ব মিডিয়ায়

রাজধানীর চকবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর প্রধান শিরোনামে উঠে আসে। দুর্ঘটনার পরপরই বিবিসি, রয়টার্স, দ্য গার্ডিয়ান, টেলিগ্রাফ, নিউইয়র্ক টাইমস, মিরর, ইয়াহু নিউজ, এএফপি, আলজাজিরা, নিউইয়র্ক পোস্ট, এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়াসহ বিভিন্ন শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম খবরটি গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার করে। শীর্ষ সংবাদপত্রগুলো তাদের অনলাইন সংস্করণে প্রতি মুহূর্তের সর্বশেষ সংবাদ ছবিসহ তুলে ধরে। ব্রেকিং নিউজ হিসেবে প্রচার করা হয়। আন্তর্জাতিক স্যাটেলাইট টেলিভিশনগুলোও স্ক্রলে অগ্নিকান্ডে  হতাহতের সংখ্যা তুলে ধরে সংবাদ প্রচার করে। গার্ডিয়ান তাদের খবরে লেখে, ‘ঢাকায় অগ্নিকাণ্ড : কেমিক্যালের দোকান হিসেবে ব্যবহৃত অ্যাপার্টমেন্টে অগ্নিকান্ডে  নিহত ৭০’। বিবিসি অনলাইন তাদের মূল খবরে শিরোনাম করে, ‘ঢাকার ঐতিহাসিক এলাকায় ভয়াবহ আগুন’। মূল সংবাদের পাশাপাশি তারা আরও চারটি সাইডস্টোরি প্রচার করে। আলজাজিরা অনলাইনে ব্যানার হেডলাইনে প্রচার করে অগ্নিকান্ডের সংবাদটি। তারা শিরোনাম দেয়, ‘আমি বিগ ব্যাংয়ের মতো বিস্ফোরণ শুনেছি, বাংলাদেশে বড় আগুনে অনেক মানুষের মৃত্যু’। তারা আরও তিনটি সাইডস্টোরি প্রকাশ করে। বার্তা সংস্থা এএফপি তাদের প্রধান খবরে লেখে, ‘পুরান ঢাকায় ভয়াবহ অগ্নিকা , অনেকেই ওই ভবনের ভিতর আটকা পড়েছেন’। রয়টার্স সংবাদে লেখে, ‘বাংলাদেশে ভবনে আগুন লেগে ৭০ জন নিহত হয়েছেন। নিহত মানুষের সংখ্যা বাড়তে পারে। ওই ভবনে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।’ নিউইয়র্ক পোস্টের শিরোনাম ছিল, ‘বাংলাদেশের রাজধানীতে অগ্নিকান্ডে  নিহত ৬৯’। টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইন সংস্করণ বাংলাদেশের ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের খবর প্রচার করে। তারা লেখে, ‘নয় ঘণ্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা’। এ ছাড়া গুগল নিউজের ওয়ার্ল্ড ক্যাটাগরিতে শীর্ষে ছিল অগ্নিকান্ড  নিয়ে নিউইয়র্ক টাইমসের প্রকাশ করা খবরটি।


আপনার মন্তব্য