শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৩০

ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ দামামা

পাল্টাপাল্টি বিমান ভূপাতিত, দুই ভারতীয় পাইলট নিহত একজন আটক, ব্যাপক গোলাবিনিময়ে চার পাকিস্তানি নিহত, নরম হচ্ছে পাকিস্তানের সুর, দুই দেশের সীমান্তবর্তী সব বিমানবন্দর বন্ধ

দীপক দেবনাথ, কলকাতা ও তানভীর আহমেদ, ঢাকা

ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ দামামা
ভূপাতিত পাকিস্তানি বিমানের ধোঁয়া উড়তে দেখা যায় (বামে)। ভারতীয় বিমানের ধ্বংসাবশেষ ছবি : আনন্দবাজার ও এএফপি

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে যুদ্ধবিমান থেকে বোমা হামলার ঘটনায় উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। মঙ্গলবার ভোররাত থেকেই কাশ্মীর সীমান্তে গোলাগুলি ও মর্টার হামলা চালিয়েছে ভারত ও পাকিস্তান। গতকাল সারা দিনই যুদ্ধ যুদ্ধ অবস্থা ছিল কাশ্মীর সীমান্তে। সীমান্তে উত্তেজনাকর অবস্থার মধ্যেই গতকাল বিকালে দিল্লিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে উচ্চপর্যায়ের জরুরি বৈঠক হয়। বৈঠকে ভারতের সব যুদ্ধবিমানকে প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর কিছুক্ষণ পরই ইসলামাবাদ জানায়, পাকিস্তান যুদ্ধ চায় না। পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর সংবাদ সম্মেলন ডেকে বলেন, পাকিস্তান শান্তি চায়। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে গতকাল ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের শোপিয়ানে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলিতে দুই বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহত হয়েছেন। ভারতীয় পুলিশ জানায়, নিহতরা জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদের সদস্য। বিবিসি জানায়, গোলাগুলিতে চার পাকিস্তানি নিহত ও ১১ জন আহত হয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, আকাশসীমা পেরিয়ে ভারত ও পাকিস্তান দুই দেশের যুদ্ধবিমানই বোমা হামলা করেছে। পাকিস্তান ভারতের দুটি এবং ভারত পাকিস্তানের একটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে বলে দাবি করেছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে দেশটির বিমানবাহিনীর একটি যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও পাকিস্তান দাবি করেছে, তারা ভারতীয় বাহিনীর দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে। এর মধ্যে একটি বিধ্বস্ত হয়েছে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে, আরেকটি ভেঙে পড়েছে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীরে। পাকিস্তানি পত্রিকা ‘ডন’ জানায়, পাকিস্তান  বলছে, তাদের বিমানবাহিনী ভারতের দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে; দুজন ভারতীয় পাইলটকে আটক করা হয়েছে; দুই পাইলট নিহত হয়েছেন।

আটক ওই দুই ভারতীয় পাইলটের মধ্যে একজনের ভিডিও প্রকাশ করেছে ইসলামাবাদ। ভিডিওটিতে দেখা যায়, চোখ বাঁধা একজন লোক বলছেন, ‘আমি উইং কমান্ডার অভিনন্দন এবং একজন পাইলট। আমার সার্ভিস নম্বর-২৭৯৮১।’ পরে ভারত তাদের একজন বৈমানিক নিখোঁজ বলে জানিয়েছে। ভারতীয় পুলিশ জানায়, গুজরাট রাজ্যের কচ্ছ আন্তর্জাতিক সীমান্তে পাকিস্তানি একটি ড্রোনকে গুলি করে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তবে ভারত ও পাকিস্তান উভয়ই নিজ দেশের কোনো বিমান ভূপাতিত হওয়ার ঘটনা বা কোনো ক্ষয়ক্ষতির বিষয় অস্বীকার করেছে। ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় ৪০ জন জওয়ানের প্রাণ যায়। এ হামলার ১২ দিন পর পাকিস্তানের আকাশসীমা পেরিয়ে ভারতীয় জঙ্গি বিমানবহর বোমা ফেলে জঙ্গি আস্তানাগুলো গুঁড়িয়ে দেয়। এর পর পাকিস্তানও ‘লাইন অব কন্ট্রোল’ অতিক্রম করে বিমান হামলা করেছে। এতে উভয় দেশের মধ্যে সংকট প্রকট হয়ে ওঠে। এনডিটিভির খবর, পাকিস্তানের যুদ্ধবিমান এফ-১৬ ভারতের আকাশসীমায় এলে তাকে তাড়া করে ভারতের সুখোই থার্টি যুদ্ধবিমান। পাকিস্তানের ওই যুদ্ধবিমানকে ফিরে যাওয়ার সংকেত দেওয়ার পরও ফিরে না যাওয়ায় গুলি চালানো হয়। পাকিস্তানি যুদ্ধবিমানটি ফিরে যাওয়ার সময় পুঞ্চ ও রাজৌরি সেক্টরে বোমাবর্ষণ করে। আনন্দবাজারের খবর, ভারতীয় সেনাদের গুলির তীব্রতায় যুদ্ধবিমানটি সীমানা পেরোতে পারেনি। এফ-১৬ যুদ্ধবিমানটি ভেঙে পড়েছে ভারতীয় সীমানায়। এ ঘটনার পর ভারতীয় বিমানঘাঁটিগুলোকে সতর্ক করে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়। এ ছাড়া পাকিস্তান ও ভারত তাদের নিজ নিজ সীমান্তবর্তী সব বিমানবন্দর বন্ধ করে দিয়েছে।

৭২ ঘণ্টার সতর্কতা জারি : ভারত গতকাল ৭২ ঘণ্টার সতর্কতা জারি করেছে দিল্লি, মুম্বাই, পাঞ্জাব, রাজস্থান, গুজরাট, হিমাচল প্রদেশ এবং জম্মু-কাশ্মীরেও। পাঞ্জাব, রাজস্থান এবং গুজরাট রাজ্যে পারমাণবিক কেন্দ্র, গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, বিমান ঘাঁটি, নৌ ঘাঁটি এবং সেনাশিবিরগুলোতে নিরাপত্তা কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। পাকিস্তানি সীমান্তে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী ও বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সকেও (বিএসএফ)। পাকিস্তান বাহিনী কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় বিস্ফোরণ বা হামলা করতে পারে আশঙ্কায় বুধবার নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন রাজৌরি, পুঞ্চ জেলার পাঁচ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে অবস্থিত সব সরকারি ও বেসরকারি স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় সেনাবাহিনী।

সুষমার ব্যস্ততা : আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অভিমত, এ অবস্থায় আন্তর্জাতিক মঞ্চকে ভারতের পাশে আনার ক্ষেত্রে মোদি সরকারকে সার্বিকভাবে প্রচেষ্টা চালাতে হবে। আর সেই কাজটিই শুরু করে দিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। এদিন দিল্লিতে রাশিয়া ও চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ওয়াই ও রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরকে পাশে নিয়ে সুষমা সন্ত্রাসবাদ দমনের ডাক দেন।

বাংলাদেশ সীমান্তে কড়া নজরদারি : ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে উত্তেজনার মধ্যে এবার ভারত (পশ্চিমবঙ্গ)-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তেও সতর্কতা জারি করা হলো। ভারতের পশ্চিম পাড়ের সীমান্তের সুযোগ নিয়ে দুর্বৃত্ত ও জঙ্গিরা যাতে বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ না করতে পারে এই সীমান্ত বরাবর সব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের ২২১৬.৭ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে, এর মধ্যে একটা বড় অংশ রয়েছে অরক্ষিত। বুধবার বিএসএফের সিনিয়র কর্মকর্তা জানান, ‘ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত বরাবর আমরা একটা সতর্কতা জারি করেছি এবং পাকিস্তান সীমান্তের উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে সন্ত্রাসবাদীরা যাতে কোনোভাবে পূর্ব পাড়ের সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করতে না পারে সেদিকে তাকিয়ে সব রকম পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।’ সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ নদী সীমান্ত বরাবরও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে বলে জানান বিএসএফ কর্মকর্তা।


আপনার মন্তব্য