শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:১৩

স্ত্রীর স্বীকৃতি মেলেনি

আগুনে তরুণীর মৃত্যু আত্মহত্যা না হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক ও লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

আগুনে তরুণীর মৃত্যু আত্মহত্যা না হত্যা

কেরোসিনের আগুনে দগ্ধ আরেক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বেলা ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহীন নামের ওই তরুণীর মৃত্যু হয়। এর আগে রবিবার লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চরফলকন গ্রামে একটি সয়াবিন খেতের ভিতর থেকে গায়ে আগুন লাগা অবস্থায় দৌড়ে বের হয়ে এলে তাকে উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। তিনি নিজেই আগুন লাগিয়েছেন নাকি অন্য কেউ তার শরীরে আগুন দিয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমতিয়াজ হোসেন বলেন, প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে ভিন্ন বক্তব্য পাওয়া গেছে। অগ্নিদগ্ধের সুনির্দিষ্ট কারণ জানা যায়নি। পুলিশ জানিয়েছে, তদন্ত চলছে। কীভাবে আগুন লেগেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঢামেকসূত্র জানান, চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার সোনাগাজী গ্রামের জাফর উদ্দিনের মেয়ে শাহীন। শনিবার চরফলকন গ্রামের রিকশাচালক সালাউদ্দিনের বাড়িতে এসে স্ত্রীর মর্যাদা দাবি করেন শাহীন। তার দাবি- সালাউদ্দিনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে। তবে এ সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেন সালাউদ্দিন। পরে এ নিয়ে শালিস বসে। এতে কোনো মীমাংসা না হওয়ায় রবিবার বিকাল ৫টার দিকে শাহীন নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন।

জানা গেছে, তাকে প্রথমে কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনার পর সালাউদ্দিন তার স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সালাউদ্দিনের দুই ভাই আলাউদ্দিন, আবদুর রহমানসহ চরফলকন ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হাফিজ উদ্দিন ও গ্রামপুলিশ সদস্য আবু তাহেরকে আটক করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য