Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:২৪

পুতিন-কিমের বৈঠকে যা হলো

প্রতিদিন ডেস্ক

পুতিন-কিমের বৈঠকে যা হলো

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন প্রথমবারের মতো শীর্ষ বৈঠক করেছেন গতকাল। তারা বসেছিলেন রাশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় বন্দর নগরী ভøাদিভস্তকের কাছাকাছি প্রশান্ত মহাসাগরের রাস্কি দ্বীপে।

বিবিসি-রয়টার্সের খবর অনুযায়ী, গত ফেব্রুয়ারিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরমাণু আলোচনা ভেঙে যাওয়ার পর এই দুই শীর্ষ নেতার বৈঠক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে উত্তর কোরিয়ার ভবিষ্যৎ প্রশ্নে এ বৈঠক তাৎপর্যপূর্ণ। খবরে বলা হয়, গত বুধবার উত্তর কোরীয় নেতা রাশিয়ায় পৌঁছালে তাঁকে সাদর অভ্যর্থনা জানানো হয়। এ সময় কিম বলেন, ‘আমি রাশিয়ায় পৌঁছানোর পর উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়েছি। আবারও বলছি এই বৈঠক ফলপ্রসূ হবে বলে আশাবাদী আমি। আশা করছি প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে আমি কোরীয় উপদ্বীপ নিয়ে প্রকৃত তথ্য তুলে ধরতে পারব। আমাদের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কও আরও মজবুত হবে।’  বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কিমের দুটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার পরও উত্তর কোরিয়ার ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় পরিবর্তন না আসায় পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করছেন তিনি।

এতে করে বিদেশি সমর্থন আরও শক্তিশালী হবে বলে আশা তার। একদিন আগে ক্রেমলিনের মুখপাত্র ইউরি উশাখোভ বলেছেন, ‘এই বৈঠকের মূল আলোচ্যসূচিই থাকবে পরমাণু ইস্যু। বিগত মাসগুলোতে কোরীয় উপদ্বীপে পরিস্থিতি স্থিতিশীল হয়ে উঠেছে। এ জন্য উত্তর কোরিয়াকে ধন্যবাদ দিতে হয়, কারণ তারা পরমাণু পরীক্ষা বন্ধ করেছে।’ এদিকে দুই নেতার বৈঠক চলা অবস্থায় গতকাল পাওয়া সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, বৈঠকে দুই দেশের ঐতিহাসিক সম্পর্কের বিষয়টি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়। পুতিন কিমকে জানান, তিনি কোরীয় দ্বীপের উত্তেজনা নিরসনে সাহায্য করতে চান। পুতিন বলেন, ‘আমার দৃঢ় বিশ্বাস রাশিয়ায় আপনার এই সফরের মাধ্যমে কোরীয় দ্বীপের সমস্যা কীভাবে সমাধান করা যাবে- সে বিষয়টি আমরা আরও ভালোভাবে উপলব্ধি করতে পারব। এ ক্ষেত্রে ইতিবাচক পদক্ষেপে সহায়তাও করতে পারবে রাশিয়া।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর