শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:৩৪

গাড়িচাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত, ওয়ারীতে অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক

গাড়িচাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত, ওয়ারীতে অবরোধ
স্বজনদের কান্না, সহপাঠীদের বিক্ষোভ -বাংলাদেশ প্রতিদিন

এসএসসি পরীক্ষা দেওয়া হলো না আবিরের (১৬)। স্কুলে পরীক্ষার প্রবেশপত্র নিতে গিয়েছিল সে। একই দিন তাদের বিদায় অনুষ্ঠানও ছিল। ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হতে যাওয়া এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু মুহূর্তেই শেষ হয়ে গেল সব। স্কুলজীবনের শেষ দিনে বিদায় অনুষ্ঠানের আগে সহপাঠীদের আড্ডায় ঢুকে পড়া ওয়াসার গাড়ির চাপায় প্রাণ গেল তার। গতকাল দুপুরে পুরান ঢাকার ওয়ারী উচ্চবিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় চালক চুন্নু মিয়াকে (৪৯) আটক করা হয়েছে। প্রতিবাদে তার সহপাঠীরা ওয়ারী স্ট্রিট সড়ক বন্ধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। ঘণ্টাখানেক পরই সড়ক থেকে তাদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিক্ষোভে যোগ দেন শিক্ষক ও এলাকাবাসীও। আবির ওয়ারী উচ্চবিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থী ছিল। ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়। সহপাঠীরা জানায়, শেষ দিনে ছেলেকে স্কুলে দিয়ে গিয়েছিলেন বাবা। গতকাল দুপুর ১২টার দিকে স্কুলের সামনের গলিতে কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিল আবির হোসেন। এ সময় ওয়াসার একটি পানিবাহী গাড়ি চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যায় আবির। ট্রাকটি খুব দ্রুত এসে আবিরের শরীরের ওপর দিয়ে যায়। জানা গেছে, আবিরের মা মারা গেছেন ১১ মাস আগে। দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে সে ছিল তৃতীয়। তার বড় ভাই আট বছর আগে গুলিস্তান পার্কের ভিতরের পুকুরে গোসল করতে নেমে ডুবে মারা যায়। আবিরের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার বরুড়া উপজেলায়। ওয়ারীর ৫৩/৪ জয়কালী মন্দির এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকত সে। তার বাবা হানিফ মিয়া নবাবপুরে মেশিনারি পার্টসের ব্যবসা করেন। আবিরের সহপাঠী ইসমাইল জানায়, আবির বাসা থেকে বের হয়ে এলে জয়কালী মন্দিরের পেছনের রাস্তায় তারা কয়েকজন দাঁড়িয়ে কথা বলছিল। এ সময় ওয়াসার গাড়িটি পাম্প থেকে পানি নিয়ে পেছন দিকে টার্ন করছিল। তাতে আবির চাপা পড়ে। পেছনের চাকায় মাথা পিষ্ট হলে ঘটনাস্থলেই আবিরের মৃত্যু হয়। ওয়ারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়ার পর গাড়ি নিয়ে চালক পালানোর চেষ্টা করেন। তাকে গুলিস্তান থেকে আটক করা হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দিলেই চালকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মন্তব্য