প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ মার্চ, ২০২০ ২৩:২১

ভারত থেকে এলো মাস্ক ও হেড কভার

চীন থেকে কিট আসবে আজ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

ভারত থেকে এলো মাস্ক ও হেড কভার
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের কাছে গতকাল ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাশ সার্জিক্যাল মাস্ক ও হেড কভার হস্তান্তর করেন -বাংলাদেশ প্রতিদিন

করোনা মোকাবিলায় পারস্পরিক সহযোগিতার অংশ হিসেবে বাংলাদেশকে ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক এবং ১৫ হাজার হেড কভার দিয়েছে ভারত। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের হাতে সহায়তার ওই সামগ্রী হস্তান্তর করেন ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস। গতকাল ভারতীয় হাইকমিশন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

ভারতীয় হাইকমিশনার জানান, করোনাভাইরাস বিস্তাররোধে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ! ভারতের ‘প্রতিবেশী প্রথমে’ নীতির অংশ হিসেবে এবং কভিড-১৯ এর বিস্তাররোধ করার জন্য একটি সমন্বিত আঞ্চলিক উদ্যোগ নিতে ১৫ মার্চ ২০২০ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং অন্যান্য সার্ক নেতৃবৃন্দ একটি ভিডিও সম্মেলন করেন। এ অঞ্চলের প্রতি ভারতের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ভারত ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক এবং ১৫ হাজার হেড কভার বাংলাদেশ সরকারের কাছে সহায়তা হিসেবে হস্তান্তর করেছে। এসব সামগ্রী কভিড-১৯ এর বিস্তার মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় সহায়ক হবে। সহায়তার এ প্রাথমিক জরুরি চালানটি দেওয়া হয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণা অনুসারে প্রাথমিকভাবে ভারতের এক কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা নিয়ে কভিড-১৯ জরুরি তহবিলের আওতায়। পরবর্তীতে, বাংলাদেশ সরকারসহ সার্কের বিভিন্ন দেশ কভিড-১৯ জরুরি তহবিলে অবদান রেখেছে। সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণ এবং নিজেদের সেরা অনুশীলনগুলো বিনিময়ের জন্য ভারত ও বাংলাদেশের ডাক্তার এবং অন্যান্য অংশীদারদের মধ্যে ভিডিও সম্মেলন পরিচালনা করার প্রস্তুতিও চলছে। ভারতীয় হাইকমিশন জানায়, বন্ধু ও প্রতিবেশী হিসেবে প্রতিকূল সময়ে ভারত বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াতে প্রস্তুত। ভারত, বাংলাদেশ এবং অন্যান্য সার্ক দেশ ঐক্যবদ্ধভাবে কভিড-১৯ সংক্রমণে সৃষ্ট পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পারবে।

চীন থেকে কিট আসবে আজ : করোনাভাইরাস শনাক্তে চীন থেকে কিট, পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) ও থার্মোমিটার আজ দেশে এসে পৌঁছাবে। ঢাকার পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, চীন থেকে একটি বিশেষ বিমানে দ্বিতীয় ধাপে আসছে মেডিকেল সরঞ্জাম। এতে আছে ১০ হাজার শনাক্তকরণ কিট, প্রথম সারির চিকিৎসকদের জন্য ১০ হাজার পিপিই এবং এক হাজার থার্মোমিটার। চীন সরকার করোনা মোকাবিলায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে চিকিৎসাসামগ্রী সহায়তা দিচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে বাংলাদেশে এসব সামগ্রী আসছে। এর আগে প্রথম দফায় চীন বাংলাদেশকে দুই হাজার কিট ও মেডিকেল সরঞ্জাম দিয়েছিল।


আপনার মন্তব্য