শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ জুলাই, ২০২০ ০০:১৬

মহামারী কাটলেই ষোড়শ সংশোধনীর রিভিউ শুনানি

নিজস্ব প্রতিবেদক

মহামারী কাটলেই ষোড়শ সংশোধনীর রিভিউ শুনানি

মহামারী কাটলেই ষোড়শ সংশোধনীর রিভিউ শুনানি

বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে ফিরিয়ে আনতে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রায় পুনর্মূল্যায়নের বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর বিষয়টি রিভিউ পিটিশন হিসেবে আপিল বিভাগে আছে। যখনই করোনাভাইরাস আমাদের ছেড়ে যাবে তখনই শুনানি শুরু করব। একই সঙ্গে দেশের বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন নয় দাবি করে স্বাধীনতার পূর্বে পাকিস্তান আমলের আদলে আইন প্রণয়নে বিএনপি এমপি হারুনুর রশীদের দাবি প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, তার আসল চেহারা বেরিয়ে গেছে, তিনি শুধু পাকিস্তান যেতে চান না, সব কিছু নিয়ে পাকিস্তান যেতে চান।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদে বাজেট অধিবেশনে গতকাল আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কার্যনির্বাহের জন্য সংযুক্ত তহবিল হতে অর্থ প্রদান ও নির্দিষ্টকরণের কর্তৃত্ব দানের জন্য আনীত দাবির ওপর ছাঁটাই প্রস্তাবের আলোচনার জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে ফেরাতে ২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী পাস করা হয়েছিল। কিন্তু এ সংশোধনীর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে তখন হাই কোর্টে রিট আবেদন করেন ৯ আইনজীবী। শুনানি শেষে ২০১৬ সালের ৫ মে হাই কোর্টের তিন বিচারকের বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠের মতের ভিত্তিতে ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেয়। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয় ২০১৭ সালের ১ আগস্ট। ২০১৭ সালের ২৪ ডিসেম্বর আপিল বিভাগের ওই রায় চ্যালেঞ্জ করে রাষ্ট্রপক্ষ রিভিউ পিটিশন করে। এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির এমপি মুজিবুল হক চুন্নুর বক্তব্যের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর বিষয়টি রিভিউ পিটিশন হিসেবে আপিল বিভাগে আছে। যখনই করোনাভাইরাস আমাদের ছেড়ে যাবে তখনই শুনানি শুরু করব। একই সঙ্গে আইনমন্ত্রী বিএনপি এমপি হারুনুর রশীদের বক্তব্যের জবাব দেন। দেশের বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন নয় দাবি করে স্বাধীনতার পূর্বে পাকিস্তান আমলের আদলে আইন প্রণয়ন করার দাবি জানিয়েছিলেন তিনি। এর জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, আজ তার (হারুনুর রশীদ) আসল চেহারা বেরিয়ে গেছে। তিনি শুধু পাকিস্তান যেতে চান না। সব কিছু নিয়ে পাকিস্তান যেতে চান। আমরা সেখানে যাব না। সেখানে ন্যায়বিচার ছিল না। আমরা ন্যায়বিচার দিয়েছি। আইনমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করা হয়েছিল। আজ উনি সংসদে বলছেন ন্যায়বিচারের কথা! শেখ হাসিনার সরকার বঙ্গবন্ধু হত্যার মামলা শেষ করেছে। এর মাধ্যমে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মাধ্যমে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর