শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৯ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ মে, ২০২১ ২৩:৩৬

যুদ্ধবিরতির আহ্‌বান বাইডেনের

ছয় ঘণ্টা পর ফের ইসরায়েলি তাণ্ডব

প্রতিদিন ডেস্ক

ছয় ঘণ্টা পর ফের ইসরায়েলি তাণ্ডব
ইসরায়েলের বোমায় ফিলিস্তিনে শুধুই ধ্বংসস্তূপ। ক্ষতিগ্রস্তদের আহাজারি-আর্তনাদ -বিবিসি
Google News

ফিলিস্তিনে টানা আট দিন ইসরায়েলি হামলার ব্যাপারে ইসরায়েল সরকার এবং হামাসের প্রতি যুদ্ধবিরতির আহ্‌বান জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এরপর ৬ ঘণ্টা যুদ্ধবিরতি রেখে আবার হামলা শুরুর ঘোষণা দেয় ইসরায়েল প্রতিরক্ষা বাহিনী। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার বরাতে জানা যায়, ইসরায়েল প্রতিরক্ষা বাহিনী তাদের অফিশিয়াল টুইটার পেজে জানিয়েছে, ৬ ঘণ্টা নীরবতার পর দক্ষিণ ইসরায়েলে আবার সাইরেন বাজছে।

যুদ্ধবিরতির আহ্‌বান জো বাইডেনের : গাজা ও ইসরায়েলের মধ্যে চলা লড়াইয়ে আট দিন পার হওয়ার পর যুদ্ধবিরতির প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সোমবার টেলিফোনে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে আলাপকালে বাইডেন একটি যুদ্ধবিরতির পক্ষে নিজের সমর্থন ব্যক্ত করেছেন বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। কিন্তু বিবিসি জানিয়েছে, বাইডেন যুদ্ধবিরতির পক্ষে সমর্থন জানালেও যুক্তরাষ্ট্র ফের সহিংসতা অবসানের আহ্‌বান জানানো জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতি আটকে দিয়েছে। এ সংঘাত দ্বিতীয় সপ্তাহে গড়ালেও সহিংসতার অবসানের জন্য শুরু হওয়া কূটনৈতিক তৎপরতায় লক্ষণীয় অগ্রগতি হয়নি। এদিকে, গতকাল ভোররাতে গাজার যোদ্ধারা ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চল লক্ষ্য করে রকেট ছোড়ে। রকেট হামলার সতর্কতা জানিয়ে সাইরেন বেজে উঠলে ওই অঞ্চলের কয়েক হাজার বাসিন্দা ভূগর্ভস্থ আশ্রয় কেন্দ্রের দিকে ছুটতে শুরু করে। তবে আগের দিনের তুলনায় গতকাল গাজা থেকে কম রকেট ছোড়া হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো পক্ষ থেকেই হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

শিগগিরই যুদ্ধবিরতি চায় না ইসরায়েল : চলমান সংঘাত বন্ধে ইসরাইলের কোনো আগ্রহ নেই বলে জানিয়েছেন দেশটির এক শীর্ষ কর্মকর্তা। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের করা এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই ইঙ্গিত দেন। শিগগিরই ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে কোনো ধরনের যুদ্ধবিরতির সম্ভাবনাও বাতিল করে দিয়েছেন তিনি। সংবাদ মাধ্যমটিকে তিনি জানান, বর্তমানে এ ধরনের কোনো বিষয়ে আলোচনা চলছে না। চলছে না কোনো দরকষাকষিও। হামাসের পক্ষ থেকেও কোনো ধরনের প্রস্তাব নেই। সবমিলিয়ে যুদ্ধবিরতির বিষয়টি এখন আর ভাবা হচ্ছে না। এ অবস্থায় নবম দিনে এসেও উভয়পক্ষের মধ্যে চলছে পাল্টাপাল্টি হামলা। তবে প্রথমবারের মতো গাজায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। গাজার পাশাপাশি পশ্চিম তীরেও চলছে সংঘাত। সেখানে গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন ফিলিস্তিনিরা। ইসরায়েলের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, গতকাল পশ্চিম তীরে এক ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। তিনি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের বন্দুক ও বিস্ফোরক নিয়ে হামলার চেষ্টা করলে তাকে গুলি করা হয়। একই সঙ্গে জর্ডান থেকে একটি ড্রোন ইসরায়েলে প্রবেশ করার সময় সেটিকে ভূপাতিত করা হয়েছে। তবে এটি কাদের নিয়ন্ত্রণে ছিল তা জানায়নি ইসরায়েল।

এই বিভাগের আরও খবর