শিরোনাম
শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ টা

সংখ্যালঘুদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা আইন চায় জাতীয় হিন্দু ফোরাম

নিজস্ব প্রতিবেদক

সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামন্ডপে হামলা এবং হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বসতবাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তাদের নিরাপত্তায় আলাদা মন্ত্রণালয় ও বিশেষ নিরাপত্তা আইনের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটি। গতকাল রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মানিক চন্দ্র সরকার বলেন, ‘দেশে বিদ্যমান আইন সংখ্যালঘুদের সুবিধা দিতে পারছে না। সে ক্ষেত্রে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মতো সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় বিশেষ নিরাপত্তা            আইন করা দরকার।’ তিনি বলেন, ‘দেশের হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের রক্ষায় অবিলম্বে ‘সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয়’ ও ‘সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন’ বাস্তবায়নসহ তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। মানুষের সামাজিক ও মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তন একদিনে সম্ভব নয়, তাই সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় নতুন আইন করতে হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়, ‘কেবল আইন করে নয়, সংখ্যালঘুদের প্রতি শ্রদ্ধা বাড়াতে সরকারকে সামাজিক, পারিবারিক ও প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার ওপর জোর দিতে হবে। বাংলাদেশের বর্তমান বাস্তবতায় প্রতি বছরের মতো আগামী বছরও পূজামন্ডপ বা হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঘরবাড়িতে আক্রমণ ঠেকাতে এখনই নতুন আইন করা দরকার।’ ‘কুমিল্লাসহ সারা দেশে ঘটে যাওয়া সাম্প্রদায়িক ঘটনাগুলো’ দ্রুত তদন্ত করে ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় এনে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন সংগঠনের নেতারা।

সর্বশেষ খবর