শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

ভোট ছাড়াই নির্বাচিত ১০৪৩ জনপ্রতিনিধি

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তিন ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ১০৪৩ জন জনপ্রতিনিধি। এর মধ্যে আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনেই ৫৬৯ জন জনপ্রতিনিধি বিনা ভোটে নির্বাচিত হচ্ছেন। বাকিরা আগের দুই ধাপে নির্বাচিত হয়েছেন। এর বাইরে চতুর্থ ধাপের নির্বাচনের ক্ষেত্রেও আওয়ামী লীগের ১২ জন একক প্রার্থী রয়েছেন। তাদের মনোনয়নপত্র বৈধ হলে তাদেরও নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, গত ২১ জুন প্রথম ধাপে ২০৪টি ইউপিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে ৮৩৪টি এবং প্রথম ধাপের স্থগিত থাকা ১৬০টি ইউপির ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তৃতীয় ধাপে ১ হাজার ইউপিতে ভোট গ্রহণ করা হবে আগামীকাল। তিন ধাপ মিলে ২ হাজার ১৯৮টি ইউপির মধ্যে ১ হাজার ৪৩ জন জনপ্রতিনিধি বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ২৫২ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৫৭৯ জন এবং সংরক্ষিত সদস্য পদে ২১২ জন নির্বাচিত হয়েছেন। প্রথম ধাপে ১৩৮ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় লাভ করেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৬৯, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ছয়জন ও ৬৩ জন সাধারণ সদস্য পদে রয়েছেন। দ্বিতীয় ধাপে ৩৬০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৮১, সংরক্ষিত মহিলা পদে ৭৬ ও সাধারণ সদস্য পদে ২০৩ জন রয়েছেন। তৃতীয় ধাপে ৫৬৯ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১০০, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৩২ এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩৩৭ জন রয়েছেন।

ইসির জনসংযোগ শাখা জানায়, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতরা ছাড়া তৃতীয় ধাপে ৪ হাজার ৪০৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোটে লড়ছেন। সংরক্ষিত সদস্য পদে লড়ছেন ১১ হাজার ১০৫ জন আর সাধারণ সদস্য পদে প্রার্থীর সংখ্যা ৩৪ হাজার ৬৩২ জন। এই ধাপে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১০ হাজার ১৫৯টি এবং ভোট কক্ষ ৬১ হাজার ৮৩০টি। মোট ভোটার সংখ্যা ২ কোটি ১ লাখ ৪৯ হাজার ২৭৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ কোটি ২ লাখ ১৫ হাজার ৪২৩ জন এবং নারী ভোটার ৯৯ লাখ ৩২ হাজার ৫৩০ জন। এ ছাড়া তৃতীয় লিঙ্গের ১৯ জন ভোটার রয়েছেন। তৃতীয় ধাপে মোট ৩৩টি ইউপিতে ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হবে।

চতুর্থ ধাপে আওয়ামী লীগের ১২ একক প্রার্থী : ইসি কর্মকর্তারা জানান, আগামী ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে ৮৪৩ ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। বৃহস্পতিবার এসব ইউপিতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল। এতে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত নারী সদস্য ও সাধারণ সদস্য পদে মোট ৪১ হাজার ৬৫টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে। এ ছাড়া ১৩টি ইউপিতে একক প্রার্থী রয়েছে। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত ১২ জন এবং স্বতন্ত্র একজন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। যেসব ইউপিতে একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা পড়েছে, সেগুলো বাছাইয়ে বৈধ হলে এবং কেউ প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলে এদের বিজয়ী ঘোষণা করা হবে। জানা যায়, ৮৪৩ ইউপিতে রাজনৈতিক দলসহ চেয়ারম্যান পদে ৪ হাজার ৯১৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ৩ হাজার ৫৪৬ জন। সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৯ হাজার ৮৫০ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩১ হাজার ৮০৪ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তিন পদে মোট মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ৪১ হাজার ৬৫৪ জন। তফসিল অনুযায়ী, চতুর্থ ধাপে মনোনয়নপত্র বাছাই ২৯ নভেম্বর। আপিল ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর। আপিল নিষ্পত্তি ৩ ডিসেম্বর থেকে ৫ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৬ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ৭ ডিসেম্বর এবং ভোট গ্রহণ হবে ২৬ ডিসেম্বর।

সর্বশেষ খবর