শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ মার্চ, ২০২০ ২১:১৮

সাজগোজ

রকমফের পাউডার!

মেকআপ প্রসাধনীর অন্যতম সামগ্রী পাউডার। তবে আগের দিনে পাউডার ছিল কেবল মেকআপের প্রথম এবং প্রধান সামগ্রী। কালের পরিক্রমায় পাউডার সামগ্রীতে যুক্ত হয়েছে নানারকম পাউডার।

উম্মে হানি

রকমফের পাউডার!
ছবি : ফারহান আহমেদ

লুজ পাউডার

লুজ পাউডার সাধারণত ঝরঝরে হয়। এটি এতটাই হালকা যে হাতে নিয়ে ফুঁ দিলেই উবে যায়। এ পাউডার মুখে লাগানোও সহজ। তবে লুজ পাউডার দীর্ঘস্থায়ী নয়।

 

কমপ্যাক্ট পাউডার

মেয়েদের ভীষণ প্রিয় কমপ্যাক্ট পাউডার। এটি আসলে ক্রিমি একটা পাউডার। জমাট ও সেমি-সলিড ফরম্যাটে থাকে বলে এর নাম কমপ্যাক্ট পাউডার। তবে কমপ্যাক্ট পাউডার খুব সামান্যই ব্লেন্ড করতে হয়।

 

প্রেস্ড পাউডার

প্রেস্ড পাউডার ফেস পাউডারের আরেক রূপ। পার্থক্য হচ্ছে- এর স্থায়িত্ব সাধারণ ফেস পাউডারের চেয়ে বেশি। আর এটি মেকআপে বেশি ম্যাট লুক দিতে পারে।

 

মিনারেল পাউডার

মূলত এটি সলিড ফাউন্ডেশন। দেখতে পাউডার হলেও কাজ করে ফাউন্ডেশনের। মিনারেল পাউডার খুব সুন্দরভাবে ত্বকের সঙ্গে মিশে গিয়ে আপনার লুক পরিপূর্ণ করে দেয়।

 

ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার

এটি নরমাল সেটিং পাউডার। এ পাউডার সব ধরনের স্কিনেই ব্যবহার উপযোগী। লিকুইড ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে তার ওপর এ পাউডার দিলে উজ্জ্বলতা বাড়ে।

 

এইচ ডি পাউডার

এইচ ডি বা হাই ডেফিনেশন পাউডার মেকআপ জগতের আধুনিক আবিষ্কার। আজকাল এর বহুল ব্যবহার লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এর ব্যবহারে চেহারার ছোট ছোট খুঁত ঢেকে ফেলা যায়।

 

ব্লট পাউডার

এ পাউডার ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নেওয়ার জন্য ব্যবহার করা হয়। সারা মুখে না লাগিয়ে শুধু টি-জোনে এর ব্যবহার করা হয়।

 

সেটিং পাউডার

আরেক নাম ক্লাসিং পাউডার। কাজ হলো মুখের মেকআপ সেট করা। ফাউন্ডেশন লাগানোর পর এ পাউডার লাগাতে হয়। এটি ফাউন্ডেশনের অতিরিক্ত ময়েশ্চারাইজার শুষে নেয়।

 

ফিনিশিং টাচ পাউডার

মুখের মেকআপ হয়ে যাওয়ার পর ফিনিশিং টাচ দিতে এ পাউডার ব্যবহার করা হয়। মডেল বা ডিভারদের স্কিনে এ পাউডার মাস্ট। কেননা, ক্যামেরার ফ্লাশে এর ইফেক্ট ভালো আসে। তবে খুব সাবধানে এ পাউডার লাগাতে হয়।

 

বেবি পাউডার

এটি সাধারণত মাইল্ড হয়ে থাকে। শিশুর ত্বক বড়দের তুলনায় নাজুক ও স্পর্শকাতর। তাই শিশুদের জন্য এ পাউডার ব্যবহৃত হয়। শুধু বাচ্চারাই নয়, বরং বড়রাও এ পাউডার ব্যবহার করতে পারেন।

 

ট্যালকম পাউডার

এবার আসা যাক পাউডারের চিরাচরিত রূপ ট্যালকম পাউডারে। প্রায় সর্বস্তরের মানুষই এ পাউডার ব্যবহার করে।

 

ব্যবহারবিধি

ফ্যাশনসচেতন তরুণীরা তাদের পার্স বা ব্যাগে কমপ্যাক্ট পাউডার রাখেন। তবে শুধু রাখলেই হবে না, ঠিকঠাক ব্যবহারও করতে হবে। মেকআপের শুরুতে ক্লেনজিং ও ময়েশ্চারাইজিং করতে হবে। এরপর প্রাইমার লাগিয়ে কনসিলার লাগিয়ে নিন। এবার ত্বকের ধরন বুঝে ফাউন্ডেশন মুখে ব্লেন্ড করে দিতে হবে। এতে ত্বক অনেক মসৃণ ও ব্রাইট দেখায়। স্পঞ্জের বদলে ভালো মেকআপ ব্রাশও ব্যবহার করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে কমপ্যাক্ট পাউডার ব্রাশে নিয়ে হাতে এক্সট্রা লুজ কমপ্যাক্ট ঝেড়ে লম্বা লম্বা স্ট্রোকে মুখে ও গলায় লাগাতে হবে।


আপনার মন্তব্য